ক্যাটেগরিঃ ধর্ম বিষয়ক

 

পৃথিবীর মোট দেশ গুলির মধ্যে বেশীর ভাগই অনুন্নত । পৃথিবীতে কত কোটি লোক দারিদ্র সীমার নীচে বসবাস করে তার হিসাব করা প্রায় অসম্ভব । পৃথিবীর সবচেয়ে বেশী চিন্তার বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে এই দারিদ্রতা । বিজ্ঞানের এই আশ্চর্য সাফল্যের যুগেও পৃথিবী থেকে দারিদ্রতা দূর করা সম্ভব হয়নি । মানুষ চাঁদে চলে গেছে, অথচ লক্ষ লক্ষ মানুষের ভিটে বাড়িও জুটেনি । কিভাবে দারিদ্রমুক্ত দেশ গঠন সম্ভব সে ব্যাপারে অনেকেই তার সুচিন্তিত অভিমত প্রকাশ করেছেন । এবং বিভিন্ন রকম উপায়ের কথা বলেছেন । কিন্তু কেউ কি সফল হয়েছেন । এমনকি সমাজতান্ত্রিক দেশ চিনেও ১২ কোটি লোক দারিদ্র সীমার নীচে বসবাস করে ।

পৃথিবী থেকে দারিদ্রতা দূর করার এক এবং একমাত্র উপায় আছে ইসলামে । ইসলাম তার অনুসারীদের জাকাত দেওয়ার কথা বলে । আল্লাহ তা’আলা প্রত্যেক মুসলমানের উপর জাকাত ফরজ করেছেন যাদের ৮৫ গ্রাম সোনার সমান সম্পত্তি আছে । তাদেরকে তাদের উপরি টাকার (সারা বছর সংসার চালানোর পর যে টাকা বাঁচবে) ২.৫% প্রত্যেক বছর যাকাত দিতে হবে । এবার একটু ভাবুন । সারা বিশ্বে কত লোক আছে যাদের ৮৫ গ্রাম সোনার থেকে বেশি সম্পত্তি আছে এবং সংসার চালানোর পরও টাকা বাঁচে । সকলে যদি যাকাত দেয় তাহলে কি একটিও গরিব থাকবে ?

গণতান্ত্রিক (?) দেশ ভারতে মাত্র ২৬ টি পরিবারের সম্পদের পরিমান ১২০ কোটি মানুষের সারা বছরের মোট আয়ের সমান (আনন্দবাজার পত্রিকা) ।চিন্তা করুন, এই ২৬ টি পরিবার যদি জাকাত দেয় তাহলে কি একটি লোকও ভারতে গরিব থাকবে ? উল্লেখ্য; বর্তমানে ৩৭% লোক ভারতে দারিদ্র সীমার নীচে বসবাস করেন ।

পৃথিবীর সবথেকে ধনী ব্যাক্তি বিল গেটস যার দৈনিক আয় ৪৪ কোটি টাকা । তিনি যদি (ধরুন) প্রত্যেক দিন জাকাত দেন তাহলে তাকে ১.১ কোটি টাকা গরীবদের দিতে হবে । যা সপ্তাহে দাঁড়াবে ৭.৭ কোটিতে, মাসে দাঁড়াবে ৩৩ কোটিতে আর বছরে দাঁড়াবে ৪০১.৫ কোটি টাকাতে । এবার বলুন, বিল গেটসের একার জাকাতে ক-বছর লাগবে লক্ষ লক্ষ ভুমিহীন-গৃহহীনদের খাবার, পোষাক আর থাকার (রোটি, কাপরা আউর মকান) ব্যবস্থা করতে ?

ভারতে ৩৭% মানুষ দারিদ্র সীমার নিচে বসবাস করেন অথচ পৃথিবীর ১০ জন ধনী ব্যক্তির মধ্যে ৪ জনই ভারতীয় (সুত্রঃ ফোর্বস ম্যাগাজিন) ।সবচেয়ে ধনী ভারতীয় হলেন লক্ষ্মী মিত্তল । যার প্রত্যেক মিনিটে আয় ১.৫ লক্ষ ও দিনে প্রায় ২১ কোটি টাকা ।আজীম প্রেমজি (উইপ্রো), আনীল ও মুকেশ আম্বানী (রিলায়েন্স), রতন টাটা (টাটা গ্রুপ) শুধু এদের জাকাতেই কি ভারত উন্নত/ধনী দেশে পরিণত হবে না ?
আল্লাহ আমাদের সৃষ্টির সেরা করেছেন । তাই এই মর্যদা তো আমাদের রাখতে হবে । মানুষ হয়ে যদি মানুষের কোনো উপকারে না আসি তাহলে তো এই জীবনটাই বৃথা । ডেল কার্নেগীর একটা কথা আমার খুব ভালো লেগেছিল (অবশ্য কার্নেগীর অনেক কথায় ভালো লাগে । ধর্মের পুস্তক ছাড়া যে গ্রন্থকে আমি সব থেকে ভালোবাসী, শ্রদ্ধা করি, বেশি পড়ি তা হল ডেল কার্নেগীর ‘প্রতিপত্তি ও বন্ধুলাভ এবং ব্যক্তিত্ব বিকাশ ও সাফ্যলের সহজ উপায়)

“আপনি পৃথিবীতে আসার আগে পৃথিবী যেমন ছিল, আপনি চলে যাওয়ার পরও পৃথিবী তেমনি থাকবে । আপনার এই আসা ও যাওয়ার মধ্যে এমন কাজ করতে হবে যাতে পৃথিবী আপনাকে মনে রাখে” ।
তাই সকল ব্লগার/পাঠক ভাইদের প্রতি আবেদন, যদি আপনি জাকাত দেওয়ার যোগ্য হন (অর্থাৎ ৮৫ গ্রাম সোনার……..) তাহলে অবশ্যই জাকাত দেবেন । এটাকে হেলাফেলা করবেন না । কারন কুরানের যে সকল আয়াতে নামাযের কথা বলা হয়েছে সেই আয়াতের সাথে যাকাতেরও কথাও বলা হয়েছে (মোট ৮২ টি আয়াতে) । আর যেহেতু রামজান মাসে সব কিছুর নেকি বেশি তাই রামজান’ই উত্তম মাস জাকাত দেওয়ার । ভালো থাকবেন…………..

“যে ভালো কাজ করে সে নিজের কল্যানের জন্যই তা করে, কেউ খারাপ কাজ করলে তার প্রতিফল সেই ভোগ করবে । তোমার প্রতিপালক তাঁর বান্দাদের প্রতি কোনো জুলুম করেন না” –সুরা হা-ম্মীম সাজদাহ/৪৬