ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

মিথ্যা এবং হিংসা মানুষকে ধ্বংস করে এটা আমরা সবাই জানি তবুও আমরা মিথ্যা বলতে ছাড়ি না। আর আমাদের বাঙালি জাতির তো জন্মগত অভ্যাস মিথ্য বলা এবং হিংসা করা। এখন বর্তমান সময়ে দেখতেছি আমাদের সাধারণ মানুষের চেয়ে রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ বেশী বেশী করে মিথ্যা বলতেছেন। আমরা স্বয়ং টেলিভিশনে দেখতেছি আসল ঘটনা তারপরও নেতৃবৃন্দের মুখে যখন শুনতেছি তখন মনে হচ্ছে আমরা বোধ হয় ভুল দেখেছি। কারণ তারা বলতেছেন ঘটনার সম্পূর্ণ উল্টোটা। তাতে আমার মনে হচ্ছে বাংলাদেশের নেতৃবৃন্দগণ মিথ্যার সাগরে ডুবিয়ে আছেন এবং মিথ্যা দিয়েই তাদের জীবন ভরপুর। তারা মিথ্যা বলতেছেন শুধু ক্ষমতায় থাকার জন্য এবং ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য। একদল ভাবতেছেন যে আমরা কীভাবে চিরদিন ক্ষমতায় থাকি আর একদল ভাবতেছেন আমরা কীভাবে ক্ষমতাসীন দলকে সরিয়ে আজীবনের জন্য ক্ষমতায় যাই। দুই দলের মধ্যে শুধু ক্ষমতার টানাটানি মাঝখানে গণতন্ত্র তথা জনগণ পিষ্ট। মরতেছেন জনগণ হাসতে হাসতে খেলতেছেন রাজনৈতিক দলগুলো। এখানে জনগণ মুখ্য নয় ক্ষমতাই মুখ্য। মুখে শুধু গণতন্ত্র আর গণতন্ত্র। কিন্তু গণতন্ত্রের অবস্থান এখন চুলোয়। যাইহোক যেখানে শাসকের মুখে ১০০% মিথ্যা সেখানে জনগণের ভাগ্যের নির্মম পরিহাস।