ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

প্রচলিত একটা ধারণা যে সরকারের হস্তক্ষেপে বাজার স্থিতিশীল করা যায়। সরকার ক্রয় করে; ভর্তুকি দিয়ে; সরকারি ব্যবস্থায় বন্টন ও বিতরণ করে ভোক্তাকে ন্যায্যমূল্যে বা কম মূল্যে পণ্য সরবরাহ করলে বাজার নিয়ন্ত্রণ বা স্থিতিশীল হয়।

বিষয়টা ব্যাপক তবে সংক্ষেপে আলোচনা করতে দুটো বিষয়ের ঊল্লেখ করতে চাই—১।বাজার ব্যবস্থা সমগ্র অর্থব্যবস্থার তথা সঞ্চয়– বিনিয়োগ– উৎপাদন– বন্টন– বিনিময়– ভোগ চক্রের একটা অংশ। তাই সার্বিক অর্থ ব্যবস্থাকে বাদ দিয়ে বাজারকে নিয়ন্ত্রণ করতে গেলে বিপত্তি ঘটে। কম্যুনিস্ট সিস্টেমে কমান্ড অর্থব্যবস্থা তার উদাহরণ যা একে একে সব দেশে পরিত্যক্ত হচ্ছে।

২।যেহেতু আর্থিক কর্মকান্ডের নীতি ও আইন প্রণয়ন করা রাষ্ট্র বা সরকারের দায়িত্ব; সেহেতু অর্থনৈতিক চক্রের কোন ব্যাপারে রাষ্ট্র বা সরকার সরাসরি অংশ নিলে আইন প্রণয়নে সরকারের নিরপেক্ষতা রক্ষা করা যায় না। অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান অসম প্রতিযোগিতায় পড়ে এবং নানা রকম দুর্নীতির জন্ম হয়।যে উদ্দেশ্যে হস্তক্ষেপ করা হয় তাও সফল হয় না।

তবে দুর্ভিক্ষ, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, যুদ্ধ প্রভৃতি বিপর্যয়ে সরকারের হস্তক্ষেপ অবশ্যই প্রয়োজন হয় এবং তার জন্য সরকারি প্রস্তুতি থাকা বাঞ্ছনীয়।

সাধারণতঃ এবং স্বাভাবিকভাবে বাজার ব্যবস্থাসহ সকল অর্থনৈতিক কর্মকান্ড জনগণের স্বাধীন অংশগ্রহণে পরিচালিত হওয়া মঙ্গলজনক।এজন্য স্থানীয় অর্থব্যবস্থার মাধ্যমে জনগণের অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন ও অর্থব্যবস্থার গণতন্ত্রায়ন আবশ্যক।যেমন স্থানীয় সংসদ(ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা) সমুহের দায়িত্বে ও তত্ত্বাবধানে স্থানীয় বাজার সমূহ পরিচালিত হওয়া।বাজার ব্যবস্থাপনার উদ্দেশ্য নিলাম বা লিজের মাধ্যমে কর বা খাজনা আদায় নয়। উত্পাদকেরা তাদের পণ্য বাজারজাত করে যাতে ন্যায্যমূল্য পায়; বাজারজাত পণ্যের সংরক্ষণ ও পরিবহনের উপযুক্ত ব্যবস্থা করা; ভোক্তাদের স্বার্থ রক্ষা ইত্যাদি বাজার ব্যবস্থাপনার মধ্যে পড়ে।সুতরাং এই সার্বিক কর্মকান্ড সরকার বা তার আমলাতন্ত্র দ্বারা করা সম্ভব না; উপরন্তু তা করতে গেলে দুর্নীতির জন্ম হয়।

উদাহরণ স্বরূপ ঢাকা শহরের প্রত্যেক ওয়ার্ডে দলমত নির্বিশেষে সকল শ্রেণীপেশার নির্বাচিত প্রতিনিধিদের ( প্রতি ওয়ার্ডে ১০০ থেকে ১৫০ সদস্য) নিয়ে ওয়ার্ড সংসদ গঠন করে যদি তাদের দায়িত্বে ও তত্ত্বাবধানে নিজ নিজ ওয়ার্ডের বাজার ব্যবস্থাপনার কাজ করা হয়; তবে দোকানদার ও ভোক্তা সকলের সমস্যার সমাধান করা সম্ভব এবং দোকানদারদের বাজার কমিটির বিরুদ্ধে অভিযোগ বা বেশী মূল্যে বিক্রয় ইত্যাদি অভিযোগের মীমাংসা হবে। এটা সরকার বা আমলাতন্ত্রের দ্বারা করা সম্ভব না; করতে গেলে ঘুষ, দুর্নীতির জন্ম হবে।