ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 

ছবি: গাজী তারেক
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে, সেই মামলায় ৪২ জন শিক্ষার্থীকে গ্রেফতার করে থানায় নেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ১০ জন ছাত্রী। ক্যাম্পাসের সামনে মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত দুইজন ছাত্রের জানাযা ক্যাম্পাসে হতে দেয়নি নির্লজ্জ এই প্রশাসন। ফুট ওভারব্রিজ, স্পিডব্রেকার এবং ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীদের সড়কে নিরাপত্তা দেয়ার দাবিতে আন্দোলন করছিলো শিক্ষার্থীরা। ভীতু প্রশাসন আন্দোলন থামাতে না পেরে, শিক্ষার্থীদের পাশে না দাঁড়িয়ে উল্টো তাদের প্রতিপক্ষ হয়ে উঠেছে। সহজ সমাধান হল ছাড়ার নির্দেশ, যাতে আন্দোলন দমিয়ে দেয়া যায়।

ছবিঃ মামুনুর রশিদ জাবের

সাবাশ ফারজানা ইসলাম! বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম নারী উপাচার্য, অবশেষে আপনি পেরেছেন উপাচার্য হতে। শিক্ষার্থীদের রাবার বুলেটে রক্তাক্ত করে, তাদের হল থেকে তাদেরকে বের করে দিয়ে, তাদের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে, ক্যাম্পাস থেকে গ্রেফতার করিয়ে আপনি একজন সফল উপাচার্য হতে পেরেছেন। আপনার পদত্যাগ চাই না।

আপনি অবশ্যই ভালো থাকবেন। আপনি ও আপনার নির্লজ্জ প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা অবসর জীবনে আমবাগান অথবা অরুনাপল্লীর বাড়িতে সুখে থাকবেন। বাকি জীবন আপনাদের প্রতি আমার ঘৃণা থাকলো। ঘৃণিত ব্যক্তি হয়ে আপনারা বেঁচে থাকবেন।

উপাচার্য হতে পেরেছেন কিন্তু শিক্ষক হতে পারেননি!