ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

JU-NEW-(3)

ক্যাম্পাসে কোন আন্দোলন শুরু হলেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রথম কাজ হল খালি করা। ছেলে-মেয়ে নির্বিশেষে হল ছেড়ে দিতে হবে। যেন প্রশাসন হচ্ছে বাড়িওয়ালা আর শিক্ষার্থীরা ভাড়াটিয়া। যদিও বাড়িওয়ালারাও একদিনের নোটিশে বাড়ি ছাড়তে বলেন না। তাদের সঙ্গে সেরকম চুক্তিই থাকে।

তাহলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এমন সর্বেসর্বা কর্তৃত্ব কে দিলো? শিক্ষার্থী কিংবা শিক্ষক কেউই ক্যাম্পাসের স্থায়ী বাসিন্দা না। শিক্ষার্থীরা যদি রাতের নোটিশে দিনে পথে নামতে পারে তাহলে শিক্ষকরা কোন অধিকারে হল সংলগ্ন কোয়ার্টার বা অন্যান্য কোয়ার্টারে থাকেন? বিশ্ববিদ্যালয় যদি খালি করতে হয়, হল থেকে কোয়ার্টার সব খালি হবে। কেউ থাকতে পারবে না। আর যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও দায়ী। ক্যাম্পাস অশান্ত হওয়ার দায় নিয়ে তাদেরকেও কোয়ার্টার ছাড়তে হবে।

অন্যায়-ষড়যন্ত্র করে, নিষ্ক্রিয় থেকে, শিক্ষার্থীদের ন্যায্য দাবি থেকে বঞ্চিত করে, অমানবিক আচরণ করে শিক্ষকরা বহাল তবিয়তে সরকারি কোয়ার্টারে থাকবেন আর ন্যায্য দাবির জন্য আন্দোলন করে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় রাস্তায় ব্যাগ-বস্তা নিয়ে ঘুরে বেড়াবে, এ কেমন অবিচার?

শিক্ষার্থীরা হল ছেড়েছে, এবার শিক্ষকরা কোয়ার্টার ছাড়ুন। ক্যাম্পাসে শুধু পুলিশই থাকুক। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় নিরাপদ থাকবে।