ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

শ্রমমন্ত্রীকে আমি প্রথমেই ধ্যনবাদ দিতে চাই যে তারা মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার আবার চালু করতে পেরেছেন তার চেয়েও বড় কথা মাত্র 40 হাজার টাকার বিনিময়ে শ্রমিক বিদেশে যেতে পারবে।

শ্রমমন্ত্রীর কাছে আমার আকুল আবেদন এই যে শ্রমিক নির্বাচনে বাংলাদেশের যে সকল ইউনিয়ন অতন্ত্ত গরীব ওই সকল ইউনিয়ন থেকে অধিক সংখক শ্রমিক পাঠানো হোক।

বাংলাদেশে সিডর, আয়লায়, অথবা মংগা পীড়িত এলাকার অথনীতিতে প্রবাসীদের পাঠানো টাকা অনন্য অঞ্চলের চেয়ে অনেক বেশি প্রয়োজনীয়।

যে সব অঞ্চলের মানুষ অলরেডি প্রচুর পরিমাণে বিদেশে থাকে যেমন কুমিল্লা, সিলেট, নোয়াখালী, ঢাকা, চিটাগঙ্গ, তারা কিন্তু নিজ উদ্ধগেই তাদের অঞ্চলের মানুষ জনকে বিদেশে নিচ্ছে এবং তাদের অর্থনীতিতে এই প্রবাসীদের টাকা অনেক কাজে লাগছে অনেক সময় অপব্যেবহার হচেছে।

উদাহরণ সরূপ মডেল হিসাবে নেয়া যাক সিলেটকে।

আজ সিলেটের প্রীতিটি জমির দাম প্রচণ্ড্য ভাবে বেড়ে গেছে শতে শতে কোটি টাকার বাড়ি কিন্তু তাতে কোনও মানুষ থাকেন না, এর প্রধান কারণ প্রচুর পরিমাণে প্রবাসীর অলস টাকা । এর তুলনায় বাংলাদেশে সীডর, আয়লায়, অথবা মংগা পীড়িত এলাকার জমির দাম অনেক কম কারণ তাদের কাছে কোনও অতিরিক্ত টাকা নেই।

তাই দিনে দিনে এলাকা ভিত্তিক অর্থনৈতিক বৈষম্য অনেক বড় হয়ে যাচ্ছে যেটা একটি সুস্থ সমাজের জন্যে কাম্য নয়। বৈষম্যময় সমাজ এক সময় পুরো সমাজের জন্যে বিপদ জনক হয়ে ওঠে।

সরকারের কাছে এখন একটি সুযোগ এসেছে এই বৈষম্য কিছুটা হলেও কম করার।

সরকার এই দরিদ্র্র অঞ্চলের কিছু মানুষকে যদি বিদেশে পাঠাতে পারে তবে তাদেরকে আর খয়রাতি সাহায্য দিয়ে সরকারকে পালতে হবে না।

পরিশেষে যারা আমার এই প্রস্তাবে ব্যথিত হবেন তাদেরকে বেপারটা ক্ষমা সুন্দর চোখে দেখার অনুরোধ করছি। এখানে উল্লেক্ষ আমি নিজে কিন্তু কোনও দরিদ্র্রো ইউনিয়ন বাসিন্দা নই।