ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

আজ মঙ্গলবার দুপুরে মহাখালী থেকে তরঙ্গ বাসে উঠে মোহাম্মাদপুর যাচ্ছি বাস যখন খামার বাড়ী পার হয়ে মানিক মিয়া এভিনিউ এর সংসদ ভবনের সামনে আসল কয়েকজন পুলিশ বাসের সামনে দাঁড়িয়ে বাস বাম পার্শে দাঁড় করাল । ড্রাইভারকে প্রয়োজনীয় কাগজ নিয়ে নিচে যেতে বলল । তখন আমরা বুঝলাম মোবাইল কোর্ট বসেছে । ড্রাইভার ও হেল্পার নেমে গেল । যাত্রীরা সবাই বাসের ভিতরেই বসে আছি যে কাজ শেষ হলেই গাড়ি ছাড়বে । যখন মিনিট পনের পার হয়ে গেল সবাই নেমে দেখতে গেলাম কি হচ্ছে । গিয়ে শুনি যে তরঙ্গের ড্রাইভার , হেল্পার দুজনেই পালিয়েছে । পুলিশ বলল ঐ ব্যক্কলের বৈধ কোন কাগজপাতি নাই তাই ভাগছে । একজন যাত্রী পুলিশকে লক্ষ্য করে বলল রমজান মাস এমন যাত্রী ভোগান্তির কোন মানে হয় না ,ওরা এতদিন রাস্তায় চলেছে কিভাবে ? এটাতো নতুন গাড়ি না তাহলে এতদিন আপনারা হয় চেক করেন নি নাহয় চেক করেছেন কিন্তু কোন পদক্ষেপ নেননি ? পুলিশ যাত্রীটার উপর রেগে গিয়ে তাকে এরেস্ট করে পুলিশের গাড়িতে বসিয়ে রাখল । যাত্রীটা বলল আমাকে ছেড়ে দিন আমি ছাত্রলীগ করি । তখন একজন পুলিশ বলল আমরা যখন ছাত্র ছিলাম তখন আমরাও ছাত্রলীগ করেছি এখন আমরা পুলিশ লীগ । পুলিশ বাঁশি বাজিয়ে লোকজন সরিয়ে দিতে শুরু করল তখন যাত্রীরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে অন্যান্য বাসে উঠে যে যার গন্তব্যের দিকে রওনা দিল ।