ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

গত কয়েক দিনে এ দেশীয় রাজনীতির বিষ দংশনে আজ বিষাক্ত আমাদের রাজপথ,দেশ ও জনগণ।কতদিন ধরে চলবে বিষের এই দংশন,তা কারোরই জানা নাই।বিষের দংশনে নীলাভ বর্ণে রুপ নিয়েছে আজ জনগণ সহ গোটা দেশ। রাজনৈতিক কিছু নাগ-নাগীনিদের এই রকম পরিস্থিতির ফলে দেশ আজ হাঁটছে যেন তলোয়ারের ধারের উপর দিয়ে। উদাহরন স্বরূপ উল্লেখ্য,হরতালের আগেরদিন এক বাস ড্রাইভারের কৃত্রিম শশ্মান তৈরী হল হরতাল সমর্থকদের দ্বারা।আর হরতালের দিনই নিষ্পাপ এক প্রাইভেটকারের চালক খুন। অবাধে চলছে রাস্তাঘাটে গাড়ি ভাংচুর।

ব্যানার-ফেস্টুনে সহ সর্বত্র বিরোধী দল দাবী করছে, সরকার দল ইলিয়াস সাহেবকে অপহরণ করেছে।আর সরকার দলের দাবী ইলিয়াস সাহেব তার নিজ দলের ইশারায় লুকিয়ে আছেন।এ এক অমানিশাময় পরিস্থিতি।কেউই সঠিকভাবে সনাক্ত করতে পারছে না এই বরেণ্য রাজনীতিবিদের অপহরণের পেছনের ব্যক্তিদেরকে।সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে বিরোধী দলের এই আন্দোলন দিনকে দিন ভয়াবহ রুপ নিচ্ছে।আর আজকের দিনে বিরোধী দলের এই আন্দোলনের রুপ দেখে মনে হচ্ছে,”বউ এর উপর উঠা রাগ মেয়েকে মেরে নিবারণ” কথাটার মত।তার মানে বিরোধীদল কর্তৃক সরকার দলের উপর উঠা রাগ জনগনকে মেরে নিবারণের ঘৃণ্যতম চেষ্টা। বিরোধী দল এর এই পন্থা তো গেল কোন পরিবারের নিত্যদিনের কর্মকাণ্ড অনুসরণের ন্যায়। কিন্তু সেই অনুসরন যদি হয় রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গের আসল কর্মকাণ্ড,যারা কিনা দেশের কর্ণধার,রক্ষক ও সেবক।তবে ব্যাপারটা আসলেই দেশের একটা পরিবারের জন্য নয়,সেটা দেশের সকল পরিবারের জন্য চিন্তা ও সামনে হতে যাওয়া মহাসঙ্কটের সতর্কবার্তা বটে।

আশা করি সরকার ও বিরোধী দল পর্যায়ের সকল ব্যক্তিবর্গ আমাদেরকে ও ৩০ লাখ লোকের প্রাণে কেনা এই দেশকে মহা সঙ্কটের দিকে ঠেলে দিবেন না।