ক্যাটেগরিঃ ধর্ম বিষয়ক

 

কালীপূজার উৎসবের আলো আঁধারে ঢেকে দিয়েছে ব্রাম্মনবাড়িয়া, মাধবপুর ও ছাতকে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা । এসব ঘটনায় একাধিক পূজামন্ডপ ও মন্দির-আখড়া ভাংচুর হয়েছে । শতাধিক সনাতন ধর্মীয় পরিবারের বসত-বাড়ি ভাংচুর, অগ্নি সংযোগ ও লুটপাটের শিকার হয়েছে । শারিরীক ভাবে নিগৃহীত মানুষের সংখ্যা শতাধিক । এরমধ্যে অনেকেই আহত হয়েছেন । নারী-শিশুসহ নিগৃহীত ও লুটপাটে সর্বস্ব হারানো মানুষগুলোর এই নারকীয় পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ার কারন এরা সংখ্যালঘু, এদের পরিচয় এরা সনাতন ধর্মীয় ।

sotho-hathe-alo

ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলায় রসরাজ নামের এক যুবকের ফেইসবুকে দেয়া পোষ্টের সূত্রধরে ইসলাম ধর্ম অবমাননার অভিযোগে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয় । সেখান থেকে সাম্প্রদায়িক উস্কানী দিয়ে হিন্দু অধ্যুষিত এলাকায় হামলা চালানো হয় । যার বিরুদ্ধে ইসলাম অবমাননার অভিযোগ সেই রসরাজ এমন পোষ্টের কথা অস্বীকার করে । স্থানীয় এলাকাবাসী তাঁকে পুলিশে সোপর্দ করে। অভিযুক্ত ব্যাক্তিকে পুলিশে সোপর্দ করার পরেও কালীপূজার উৎসবে নারকীয় উল্লাসে হামলা চালানো হয় । নিমিষে ধ্বংস করা হয় বিভিন্ন পূজামন্ডপ । কালীপূজা বা দেওয়ালীর জন্য আলোকিত উৎসবপ্রাঙ্গণ পরিনত হয় বিভীষিকার অন্ধকারে। একের পর এক বাড়ি ঘর লুট হয়। নারীদের নির্যাতন করা হয় । শিশুরা আতংকে কাঁপতে থাকে । এসব ঘটনাকালে স্থানীয় প্রশাসন নির্লিপ্ত আচরণ করে। যা লুটেরাদের সাহস যোগায়। সরকারের ধামাচাপা মনোভাবে ব্রাম্মনবাড়িয়ার ঘটনা হবিগঞ্জের মাধবপুর এমনকি সুনামগঞ্জের ছাতক পর্যন্ত বিস্তৃত হয় ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার কাশিপাড়া গ্রামের বৃদ্ধা পূর্ণিমা দাস-এর টিনের ঘরের বেড়াটি কুপিয়ে ছিন্নভিন্ন করা হয় । ঘরের ভেতর পুরো তছনছ। ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ভাঙাচোরা আসবাব, হাঁড়িপাতিল, এমনকি বহু যত্নের হারমোনিয়ামটিও। বঙ্গবন্ধুর ছবিও দলাইমলাই করা। এই ধ্বংসযজ্ঞে মাটিতে লুটিয়ে পরা বঙ্গবন্ধুর ছবি বলে দেয় অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশকে অন্ধকারে ঢেকে দেয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। কালীপুজার আনন্দকে আঁধারে ঢেকে দিয়ে ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া, মাধবপুর ও ছাতকে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক হামলা এরই অংশ। ষড়যন্ত্রকারীদের রুখে দাঁড়াতে হবে। নিপীড়িতদের পাশে দাঁড়াতে হবে। হামলার উস্কানীদাতাদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের মনে জ্বেলে দিতে হবে আস্থার আলো ।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার, ৩রা নভেম্বর সন্ধ্যা ৫টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মৌলবাদ ও ‘সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী সাংস্কৃতিক মঞ্চ, সিলেট’-এর উদ্যোগে ‘সাম্প্রদায়িকতা ও মৌলবাদ রুখতে শত হাতে আলোক প্রজ্বলন’ করা হবে ।