ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

মানহানির মামলার ভয়কে জয় করেই লিখতে বসলাম, সাহারা খাতুন বাংলাদেশের সরাষ্ট্র মন্ত্রী যাকে আজকাল মানুষ ২৪/৪৮ আল্টিমেটাম বলে সম্বোধন করে থাকেন। সাহারা খাতুন নামটি শুনলেই ছোট বেলার সেই দিনগুলোর কথা মনে পরে যাই; যখন বাবা আমাদের ঘুমপাড়ানির গল্প শোনাত আর গুম না এলে বলত চাঁদের দেশে বেড়াতে নিয়ে যাবে যদি রাতে ঠিকমত ঘুমাই। মিছেমিছি কাগজের নৌকা বানিয়ে দিয়ে বলত এটা নিয়ে আমরা বাপ বেটা প্রশান্ত মহাসাগর পারি দিব। জানি যদিও কথাগুলো মিথ্যে বুলি ছাড়া কিছুই ছিল না, কিন্তূ তার মধ্যে ছিল ভালোবাসা আর লুকিয়ে থাকা অনেকগুলো আশা ও অভিপ্রায়।

আজ আমার দেশের মন্ত্রীরা যেসব আশার বাণী ব্যক্ত করেন তার কতটুকু তারা বাস্তবে করে দেখাতে পারেন, মনে হই না তার অনুপাত 0% এর বেশি হবে। আজকে আমাদের দেশের রুই কাতলাগুলো ১৬ কোটি মানুষকে দুধের বাচ্চাদের মত বোকা বানিয়ে দেশটাকে লুটেপুটে খাচ্ছে। কেউ বলছে ৭২ ঘন্টার মধ্যে আসামি খুঁজে বের করা হবে আবার কেউ বলে কারো বেডরুম পাহারা দেওয়া আমাদের কাজ না । কেউ কেউ আবার তাকে পুঁজি করে দেই হরতালের ডাক, আর করে বোমাবাজি, যাতে পরিশেষে মরে কিছু নিষ্পাপ দুধের বাচ্চা আর খালি হয় কিছু মায়ের বুক।

হ্যা, আমি বলি বেডরুম পাহারা দেওয়া তোমাদেরই কাজ!

এটা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ, এ দেশের প্রজারাই সকল ক্ষমতার উত্‍স। সহজ বাংলায় যদি বলি তাহলে তোমাদের বেতনধারী চাকর ছাড়া কিছুই বলা যায় না । সকল ধর্মেই বলা আছে, যারা কথা দিয়ে কথা রাখেনা তারা বেঈমান’ তাহলে আমাদের দেশের রুই কাতলগুলো কী আপনারাই বিবেচনা করুন। তাই আজ সময় এসেছে জেগে উঠার আর দেশকে ভালোবাসার….যাতে আছে অপুরণীয় সুখ।