ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

আমার ছোট ভাই মেরিন প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিভাগের “আল-হাসান ফারুক” মিসরাতা, লিবিয়াতে জব করে।
গতকাল রাতে মোবাইলে কথা হয়েছে…সবাই ঘরে বন্ধী…চারপাশে ছড়িয়ে পড়েছে বিক্ষোভ…..দোকানপাট বন্ধ…..সব রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ…গ্রেনেডের শব্দ শুনে আতংকিত হয়ে আমাকে মোবাইলে চেষ্টা করেছে বারবার…ঘরের জানালা খুললেই দেখা যায় নরকীয় ধ্বংসযজ্ঞ… খুব বিপদজনক হয়ে গেছে চারপাশ ….কারো সাথে যোগাযোগ করা যাচ্ছেনা…মোবাইল নেটওয়ার্ক সব সময় পাওয়া যাচ্ছেনা, ইন্টারনেট বন্ধ…..ইন্টারনেটের জন্য Google-র Proxy IP address দিলেও কাজ করছে না….বিমানের টিকেট কেটে বাংলাদেশে আসার কোনো অবস্থা নাই।

About current sitiation of Tunisia border
My younger brother (AL-HASAN FARUQUE, Passport No: C 1286 431) now in TUNISIA border. About 20,000 Bangladeshi people waiting under open air, no shelter camp of IOM, RED CROSS volunteer teams are not belongs there. Have no food and water. But Bangladesh government declares about these types of support.
When my brother’s team moves by bus from Libya to Tunisia border; Then Libyan army seize their all mobile phone. After reach the Tunisia border he informs me another mobile today (01/03/2011, 8:00AM).
Please pray for brother and inform me have any initiative for rescue them.
আজ সন্ধায় আবার যোগাযোগ করা গেছে ..সেখানে এখন মানবিক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশিরা…খাবার সংকটের কারণে। আজ বিকালে ২ জন মারা গেছে…। রাস্তায় বের হলেই গুলি করা হচ্ছে..ইতিমধ্যে অনেক বাঙালী মারা গেছে। সেখানে লিবিয়ার বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করে লাভ হচ্ছেনা…দূতাবাসের কর্মকর্তাদের কাউকেই ফোনে পাচ্ছেনা। চায়না ও কুরিয়ান কোম্পানির চিফরা বাঙালীদের ফেলে চলে গেছে। ত্রিপোলি বিমান বন্দরে ফেলে রেখে গেছে অনেককে।

বাবা মা, বোন, বাসার সবাই নাওয়া খাওয়া ছেড়ে দিয়েছে। এক ভিষন উৎকন্ঠার মধ্য দিয়ে দিন কাটাচ্ছেন। আমার বাবা মাকে বুঝিয়ে পারছি না। আমি কি বলে বুঝিয়ে রাখি তাদের?

সচিবালয়ের ৭ নম্বর ভবনে প্রবাসী ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ৪১৮ নম্বর কক্ষে এই কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। কন্ট্রোল রুমে যোগাযোগের
ফোন নম্বর ৭১৬৮৬০৬ ;
মোবাইল ফোন ০১৯১৪-৮৭১১১৮,
০১৫৫২-৩৬৮৫৫১ ও ০১৮১৯-২৬২১৭৫ ;
এবং ফ্যাক্স নম্বর ৭১৬০৬৮৮।

এছাড়া ই-মেইলে যোগাযোগের ঠিকানা js@probashi.gov.bd
js.emp@probashi.gov.bd,
ahmkamal2020@yahoo.com

গতরাতে কন্ট্রোল রুমের ফোন নম্বরে ফোন করে ওই লাইনটি দীর্ঘক্ষণ ব্যস্ত পাওয়া যায়। পরের তিনটি মোবাইল ফোন নম্বরে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও কেউ তা ধরেনি। তবে গতকাল সকালে (২৫/২/২০১১) কন্ট্রোল রুমের সংযোগ (০১৫৫২-৩৬৮৫৫১) পেলেও এর কোনো সুরাহা হয়নি বলে জানান

আজ সকালে (২৬/২/২০১১) জাতীয় প্রেসক্লাবে মানববন্ধন শেষে আমি সরাসরি সচিবালয়ের ৭ নম্বর ভবনে প্রবাসী ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ৪১৮ নম্বর কক্ষে এই কন্ট্রোল রুমে যাই। সেখানে আমার ভাই-র নাম লিসটেড করে আসি, সিরিয়াল নং -৩১৯,

মন্ত্রণালয় থেকে আজকে আমাকে যে ই-মেইল দেয়া হলো তাতে বলা হয়েছে IOM, ICRC-র সহায়তায় মিশর ও তিউনিসিয়া সীমানায় নিরাপদে সরিয়ে নেয়া হবে-
Saturday, 26 February, 2011, 5:54 AM
From: “joint_secretary employment”Add sender to ContactsTo: “hasan iqbal”
Cc: “Dr. Zafar Ahmed Khan”

Dear Iqbal
Noted your genuine concern. Please have patience. We have already contacted IOM and ICRC seeking urgent help. Ministry of Foreign Affairs have taken steps to take them to safe place in Egypt or Tunisia. Be with us.
Thanks

Joint Secretary (Employment)
Ministry of Expatriates’ Welfare and Overseas Employment

কিন্তু এতো সময় চলে যাচ্ছে লিবিয়ার বিভিনন শহরে যে অনেক বাংলাদেশি আটকে আছে সে বাপারে কোন সুরাহা পেলাম না। তারা কিভাবে মিশর সীমানায় আসবে তার দিকনির্দেশনা পাচ্ছিনা। আমার ভাই গুলো কি তাহোলে না খেয়ে মারা যাবে?
Red Cross লিখেছে-

Friday, 25 February, 2011, 4:28 PM
From: “Information Information”
Add sender to ContactsTo: “hasan iqbal”

Dear Hasan Iqbal,
Thank you for your email and interest in the Red Cross.
You will need to contact the International Committee of the Red Cross (ICRC) with your request. They will be able to provide you with more details about the work of the Red Cross and Red Crescent movement in Libya. The latest information from the ICRC on the situation is as follows:

“Three teams of medical staff, including surgeons, are ready to leave for Libya to help local staff in their life-saving activities,” said Georgios Georgantas, the ICRC’s deputy head of operations for Northern and Western Africa. “The Norwegian Red Cross, Finnish Red Cross and German Red Cross are each contributing medical personnel to these efforts. We hope that the ICRC medical teams can get into the country as soon as security conditions permit.”
These medical teams are bringing enough surgical supplies and other medical items to treat up to 2,000 injured persons. Additional supplies will be made available to local medical services as needed. Hospitals in Libya reportedly lack basic drugs and other medical supplies. The Libyan Red Crescent continues to assess needs on the ground in coordination with hospitals.
The ICRC reminds all those involved that they must respect human life and dignity at all times, and that health-care personnel, vehicles and facilities must be protected and respected. The ICRC also reiterates that security forces must exercise restraint and only resort to lethal force when absolutely necessary for the protection of human life.

Many thanks,
Information Resources Red Cross

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মণি জাতীয় সংসদে বলেছেন, লিবিয়ায় আটকে পড়া বাংলাদেশি নাগরিকদের মিসর ও তিউনিশিয়ার অস্থায়ী ক্যাম্পে সরিয়ে নেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু এর কতটুকু চেষ্টা করা হচ্ছে লিবিয়ায়!
যানবাহন চলাচল বন্ধ লিবিয়ার সব কটি শহরে….মিসর ও তিউনিশিয়ার অস্থায়ী ক্যাম্পেই বা যাবে কি করে।

International Federation based in Geneva, Switzerland লিখেছে –

Friday, 25 February, 2011, 8:05 AM
From: “International Federation Secretariat” Add sender to ContactsTo: “hasan iqbal”

Dear Mr. Al Hasan Faruque,
Your email has reached the International Federation based in Geneva, Switzerland.
Your message has been received and read with concern.
For your information, the International Federation of Red Cross and Red Crescent Societies is a federation of National Societies which works to improve the lives of vulnerable people by mobilizing the power of humanity. For doing this, it operates through and in agreement with National Societies.

We suggest, therefore, that you contact the National Society based in your country and submit your request for support directly to them. We invite you as well to read the press release on our website http://www.ifrc.org/ about Libya and the Middle East crisis.
We hope that you can find the support you need and wish you all the best.

Regards,

International Federation of Red Cross
and Red Crescent Societies

[img|http://media.somewhereinblog.net/images/thumbs/hasan_iqbal_1298563998_1-hasan_iqbal_1298458081_1-168148_166548310056942_100001053211564_349541_2350299_n.jpg]

এখন স্থানীয় লিবিয়ানরা বাংলাদেশি নাগরিকদের বাসায় এসে লুটপাট শুরু করে দিয়েছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী যেখানে বেনিন, সোমালিয়া, সিয়েরালিয়ন, লেবানন, উগান্ডার মত জায়গায় মানবতার জন্য জাতিসংঘের মাধ্যমে কাজ করছে; সেখানে নিজ দেশের জন্য কেন তাদের দ্রুত পাঠানো হচ্ছেনা।

ছোট ভাই-র বাসার ঠিকানা:
Al Hasan Faruque,
Serata Wag, Mahal Sipasi, Misrata, Libya.

Company Name: Al Buhaiya, C&F company
Employer Name: Al Hasan Faruque
BMET registration No: NKM20090334897G
Passport No: C 1286 431
Recruiting Agent ID: RL 0511

সেখান থেকে বাংলাদেশিদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার যে initiative তা আরো কম সময় নেয়া দরকার। কারণ, এখন খাবার সোংকটে আছে সবাই।

বিক্ষোভ ও সহিংসতার কারণে লিবিয়ায় অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে এবং যেহেতু এ বিষয়ে আমাদের মধ্যে শঙ্কা কাজ করছে, সেহেতু প্রয়োজনে লিবিয়া থেকে বাংলাদেশিদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, লিবিয়ার বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত ও বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমরা জোড় আবেদন জানাচ্ছি।
লিবিয়ায় সরকারবিরোধী বিক্ষোেভ শতাধিক বাংলাদেশি জিম্মি….
লিবিয়ায় বসবাসরত অন্যদেশের নাগরিকদের তাদের নিজ নিজ দেশের সরকার নিরাপেদ দেশে সরিয়ে নিয়েছে।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
আমার ছোট ভাই সহ যারা লিবিয়ায় আছে..সবাইকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনুন।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,লিবিয়া থেকে বাংলাদেশিদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, লিবিয়ার বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত ও বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমরা জোড় আবেদন জানাচ্ছি।

মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, লিবিয়ায় বর্তমানে প্রায় ৬০ হাজার বাংলাদেশি কর্মী রয়েছেন। এর মধ্যে শুধু বেনগাজিতেই রয়েছে প্রায় তিন হাজার বাংলাদেশি। জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) তথ্য অনুযায়ী, লিবিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীর সংখ্যা প্রায় ৮৯ হাজার।

আমি জানিনা..পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, শ্রম ও প্রবাসী কল্যান মন্ত্রণালয় আজকে কি উদ্যোগ নিয়েছে।

আমি আর কিছুই লিখতে পারছিনা।
লিবিয়ায় বসবাসরত ৮৯ হাজার বাংলাদেশি নাগরিকের পরিবারের কথা কি কেউ ভাববেনা একবার।

hasan_netsu@yahoo.com,+8801712 194457
=============================================================================
http://www.somewhereinblog.net/blog/bdcairo/29334934

http://meahmostafiz.wordpress.com/2011/02/28/a-bangladeshi-cries-to-international-community-to-rescue-brother-in-libya/

http://blog.bdnews24.com/laboni/7306

http://blog.bdnews24.com/hasan_iqbal/7573

http://community.skynetjp.com/id11.htm