ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

 

সম্প্রতি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতা ও ভোট কারচুপির ঘটনায় ফেনীর জেলা প্রশাসক আবদুল কুদ্দুস খাঁন ও ফেনী মডেল থানার ওসি আমিনুল ইসলামকে প্রত্যাহার করায় হঠাৎ আলোচনায় জয়নাল আবেদীন হাজারী। এ দুজন কর্মকর্তার প্রত্যাহারের পেছনে সাবেক এই সংসদ হাজারীরই হাত ছিল এমন গুঞ্জন উঠেছে গোটা শহরে। এ দু’জন বিতর্কিত জেলা প্রশাসক ও ওসির প্রত্যাহারের নেপথ্যে জয়নাল হাজারী হাত না থাকলে এদের খুঁটি এখান থেকে উৎক্ষিপ্ত করা যেতো না বলে জানিয়েছেন প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা। কারণ ইউপি নির্বাচনের কয়েকদিন আগে জয়নাল হাজারী নির্বাচন কমিশনের সাথে সাক্ষাৎ করে আসেন।
দীর্ঘদিন যাবৎ ফেনীর জেলা প্রশাসক আবদুল কুদ্দুস খাঁন ও ফেনী মডেল থানার ওসি আমিনুল ইসলাম শাসনের নামে ফেনীতে শোষনের রাজ্য কায়েম করেছেন। দু’জনই জয়নাল হাজারীর চির শত্রু নিজাম উদ্দিন হাজারীর আস্থাভাজন। আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলেও জয়নাল হাজারী কোন দাপট, হুংকার নেই। হাজারী থাকলেও না থাকার মতো। বর্তমানে তার সম্পাদিত দৈনিক হাজারিকা প্রতিদিন ও সাপ্তাহিক হাজারিকা নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। দীর্ঘদিন যাবৎ আলোচনায় নেই। এদের দুইজন ফেনী থেকে প্রত্যাহার হওয়ার ফেনীর মানুষ দীর্ঘদিন পর স্বস্তির নিশ্বাস ফেললো। ওসি আমিনুল ইসলাম বিরোধী দল ও হাজারী সমর্থকদের বিভিন্ন সময় মামলা দিয়ে হয়রানি করেছে। ফেনী মডেল থানাকে বানিয়েছে সরকারী দলের বৈঠক খানা।