ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

spain+(2)

স্বাধীনতাকামীদের পতাকা মিছিল, ছবি: রয়টার্স

 

“স্বাধীনতা-হীনতায় কে বাঁচিতে চায়, হে কে বাঁচিতে চায়?” – বাঙালি সাহিত্যিক রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা এ পংক্তি কাতালোনিয়া বাসীদের জন্য বড়ই উপযোগী।

আজ হতে শতবর্ষ আগে কবি রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়ের এ লেখা সারা বিশ্বের সকল মুক্তিকামী মানুষের মনের প্রতিধ্বনি। স্পেনের সরকারের বিভিন্ন আগ্রাসী কর্মকাণ্ডের ফলে কাতালোনিয়া বাসীদের স্বাধীনতার স্বপ্ন হুমকির সম্মুখীন। পৃথিবীর সকাল নৃগোষ্ঠী স্বাধীনভাবে বাঁচতে চায়, কিন্তু সকাল নৃগোষ্ঠির পক্ষে স্বাধীনতা অর্জন করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। তাহলে পৃথিবীতে বর্তমান রাষ্টের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে কয়েক হাজারে পৌঁছে যেতো।

কাতালোনিয়া পৃথিবীর অন্যতম একটি শিল্পোন্নত ও সম্পদ সমৃদ্ধ এলাকা। তাদের রয়েছে নিজস্ব সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য। একসময় অটোম্যান (তুর্কি) শাসিত এই এলাকা বহু বছর ধরে স্বাধীনতার স্বপ্নে বিভোর। এক্ষেত্রে বৈশ্বিক সমর্থন তারা অর্জন করতে ব্যর্থ হয়েছে। তাদের আঞ্চলিক সংসদ স্বাধীনতার ঘোষণা দিলেও স্পেন সরকার তাদের এই স্বাধীনতা স্বীকার করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। ফলে তাদের আরো দীর্ঘদিন স্বাধীনতা অর্জনের জন্য লড়াই করতে হবে।

তাদের প্রধান নেতা পুজদেমন সহ অন্যান্য নেতৃত্বকে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হবে, সমর্থন আদায় করতে হবে, শান্তিপূর্ণ লড়াই চালিয়ে যেতে হবে। তাদের নিজস্ব সংস্কৃতির চর্চা করতে হবে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও গবেষণায় তাদের অগ্রযাত্রাকে আরো সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। ইউরোপ মহাদেশের বুকে একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতির জন তাদের আত্ম নিয়ন্ত্রণের অধিকারের কথা সারা বিশ্বে প্রচার করতে হবে। তাদের স্বাধীনতার যৌক্তিকতা সারা বিশ্বে প্রতিষ্ঠা করতে হবে। এক্ষেত্রে স্পেন সরকারের সঙ্গে কোনোভাবেই বিরোধে জড়ানো যাবে না।