ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

বৈশাখের খর রৌদ্রে আর বাউরী বাতাসে যখন রমনার সবুজ চত্বরে প্রানের ঢেউ খেলে যাবে, বিরোধী দলীয় নেত্রী, আপনাদের লীলাখেলা হরতাল তখুনি গতি হারাবে!

আপনাদের কর্মে সৃষ্ট এই হরতাল এ মৌনী তাপস বৈশাখে সেই নিঠুরের মত তাকিয়ে থাকবে মৃত্যু ক্ষুধার মতো তার রক্ত নয়ন মেলে, আপনারা কি তখন স্বস্তিতে থাকবেন? ঈষান-নৈঋত কোনে যখন বাংলার খোলা হাওয়া মুঠো মুঠো প্রান ছড়িয়ে দেবে, তখন কি আপনি একটুও বিমর্ষ বোধ করবেন না ডাকা হরতালের জন্যে?

আপনাদের হাতে এ ভুবনের ভার নেই হে নেত্রী, আপনারা যা খুশী তাই করতে পারেন না অগণন জনগোষ্ঠীর সম্ভাবনা হরন করতে!

কোন যুক্তি তর্কের ধার না ধেরে, বৃহত্তর জনগোষ্ঠীর মতামতের প্রতি অবজ্ঞা দেখিয়ে, কয়েক লক্ষ এইচএসসি পরীক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন বিপন্ন করেও আপনাদের এই হরতাল হরতাল খেলা আপনারা বহাল রাখলেন ও আবারো দেশকে হরতালে ঠেলে দিলেন, মনে রাখবেন এই কয়েক লক্ষ পরিবার আপনাদের,বিশেষ করে বিরোধী দলের ভোট ব্যাঙ্ক থেকে চিরতরে সরে গেল!

বিরোধী দলের কুশীলবরা , আপনারা কি আসলেও ইলিয়াস আলীর মঙ্গল চেয়েছেন? নাকি সরকার পতনের চেস্টার করছেন তাকে বলির পাঠা করে? ভাড়াটে বোমাবাজরা দিয়ে আগামী কাল ও পরশু কত মানুষ হত্যা করার, কত সম্পদ ধংস করার সম্ভাবনা আছে, জানাবেন কি?