ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

আমরা কোথায় বসবাস করি, সোনার বাংলাদেশে নাকি অন্য কোথাও, ভাবতে অবাক লাগে যে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা হয়েছিল ধর্ম নিরপেক্ষভাবে, সমাজতন্ত্র বজায় রেখে গণতন্ত্র বিকশিত করার জন্য তা আজ বিমলিন, যদি ভুল হয় ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন, রাষ্ট্রের কোন ধর্ম নেই কিন্তু বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রের রাষ্ট্রীয় ধর্ম ইসলাম আবার একইসাথে বাংলাদেশ একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র যা সাংঘাতিক সাংঘর্ষ পূর্ণ, যে দ্বি-জাতি ত্বত্তের ভিত্তিতে পাকিস্থান নামক রাষ্ট্রের জন্ম হয়েছিল তা মুলত ছিল ধর্ম নির্ভর, কিন্তু বাংলাদেশ জন্মের ইতিহাস সে রকম নয়, তাহলে আমরা দিন দিন কেন ধর্মীয় রাজনীতির দিকে মন-প্রান উজাড় করে দিচ্ছি তা সত্যি বোধগম্য নয়, নির্বাচনের পালাবদলে যারাই ক্ষমতায় আসুক না কেন, তারাই ধর্মকে স্পর্শকাতর হাতিয়ার  হিসেবে রাজনীতিতে ব্যবহার করেছে, যদিও পাকিস্তান থেকে আলাদা হওয়ার পর আমরা অনেক ক্ষেত্রে তুলনামূলক উন্নতি লাভ করতে সমর্থ হয়েছি তবুও বিভিন্ন দৃষ্টি কোন থেকে বিচার করলে দেখা যায় পাকিস্থান ও বাংলাদেশের মধ্যে তেমন কোন মৌলিক পার্থক্য নেই।

স্বাধীনতাকে উপভোগ করতে এবং গণতন্ত্রের প্রক্রত  স্বাদ পেতে হলে রাজনীতির ধর্মীয় চর্চা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে, তা না হলে আমাদের অবস্থা হবে পুরনো বোতলে নতুন পানীয় পান করার মতো , এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে হলে দরকার গণসচেতনতা এবং রাজনেইতিক দল গুলোর ধর্মীয় রাজনীতি চর্চার বিরুদ্ধে পরিষ্কার অবস্থান, কিন্তু সেই সাহস কোন রাজনেইতিক দলের আছে বলে মনে হয় না , যাই হোক সত্যি যদি আমজনতার ঘুম ভাঙ্গে অর্থাৎ জনসচেতনতা সৃষ্টি হয় তাহলে আমার বিশ্বাস জনগণ একদিন এইধরনের দলগুলোকে নর্দমায় ছুড়ে ফেলবে।