ক্যাটেগরিঃ অন্যান্য

রাস্তা দিয়ে হাটাঁর সময় যখন দেখতাম রাস্তার পাশে পুলিশ ঘুষ খাচ্ছে, সন্ত্রাসীরা চাঁদাবাজী করছে, অথবা কোন অফিসে গেলে দেখতাম সেখানে ঘুষের জন্য কাজ আটকা পড়ে আছে তখন নিজেকে খুব অসহায় মনে হত. আবার যখন দেখতাম কোন হতভাগ্য লোকের কাহিনী তখনও মনে হত মানুষ যদি জানত তার কথা. আরও মনে পড়ছে ঘরের পাশে ঘটে যাওয়া ঘটনা ও দুর্ঘটনার কথা যা মানুষের কানে যাওয়ার আগেই সংবাদ মাধ্যমের টেবিলে কাঁটা ছেঁড়া হয়ে সম্পূর্ন নতুন খবরে পরিনত হওয়ার আশ্চর্য কাহিনী।

এখন মনে হয় এসব নিয়ে আক্ষেপ করার দিন শেষ, কর্পোরেট ও সিক্রেট সোসাইটির নিয়ন্ত্রণাধীনে, সরকারের কঠিন হস্তক্ষেপে বন্দি এই সংবাদ মাধ্যমের হাত থেকে রক্ষা পাবার জন্য এখন খুবই প্রয়োজন নাগরিক সাংবাদিকতা. এর সত্যতা নিয়ে অনেক পর্যালোচনা করতে হলেও এটাই হতে পারে মাইন্ড কন্ট্রোলড মিডিয়ার বিরুদ্ধে কার্যকর এক ঔষধ।

বিডিনিউজের এই প্রচেষ্টা কে স্বাগত জানাই. আশা করি এখানে কথিত রাষ্ট্র বিরোধীতা ও ধর্ম বিরোধিতার নামে কারও সোচ্চার নৈতিক কণ্ঠকে রোধ করা হবে না।