ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

প্রিয় ব্লগার এবং পাঠক, আমি খুব ভালো কোনো লেখক নই, নই কোন বাংলা ভাষা বিশারদ। তাই অল্প কথায় বলি। সরকার যখন ডিজিটাল বাংলাদেশ বলে গলা ফাটাচ্ছে, যখন দেশে বাংলা ভাষার যথাযথ প্রসারের জন্য নানা উদ্যোগ নিচ্ছে, তখন আমাদের দেশের সাধারণ মানুষ এই ছবির মত এমন বাংলা ভাষা ব্যবহার করছে। এই আমাদের বাংলার অবস্থা। দুঃখ পাবেন? নাকি হাসবেন?

আমার কিন্তু দুঃখ বা আনন্দ কোনটাই হচ্ছে না, বরঞ্চ কিছু প্রশ্ন জেগেছে মনে। কোন লেখক বা পাঠকের যদি উত্তর জানা থাকে, দয়া করে জানালে ভালো লাগবে।

প্রশ্ন হলো, সরকার যে বাংলা কী-প্যাড বিহীন যেকোন ফোন আমদানী নিষিদ্ধ করলো, এই উদ্যোগে আমাদের বাংলার কতটুকু উন্নতি হবে? আমরা কতটুকু বাংলা শিখতে পারবো? ছবিটার মত ভুল বানানে বাংলা চর্চা কি বন্ধ হবে? আর আমরা অনেকেই তো এখনি বাংলা কী-প্যাড যুক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহার করি। বাংলা কী-প্যাড যুক্ত মোবাইল ফোনগুলো কমদামি হওয়ায়, সমাজের নিম্নবিত্ত শ্রেণীতে পরে এমন অনেকেই এরকম ফোন ব্যবহার করে এবং তারাই মূলত স্কুল-কলেজে অনিয়মিত হওয়ার দরুণ এমন করুণ দুঃখজনক বাংলা ব্যবহার করে। কিন্তু এই ডিজিটাল দ্রুত গতির যুগে আমাদের কারো কি এত সময় আছে বাংলা কী-প্যাড খুঁজে খুঁজে এত সময় ব্যয় করে বাংলায় এসএমএস লিখার? বতর্মানে এত সময় ব্যয় করে কয়জন বাংলায় এসএমএস লিখে?