ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

আপাতত চিংড়ি মাছ সারা এই রমজানে আর কোনও ধরনের মাছ বাংলাদেশ থেকে রপ্তানি করা যাবে না- এই খবরে কলকাতায় রীতিমতো হাহাকার পড়ে গেছে। বিশেষ করে সেই দেশের সবকয়টি দৈনিক পত্রিকায় খবরটি গত দুই দিন ধরে গুরত্ত দিয়ে চ্ছাপা হচ্ছে।

আনন্দবাজার লিখেছে যে পচ্চিমবঙ্গের অববাহিকায় এবছর অনাবৃষ্টির জন্য ইলিশ একদমই মিলছে না. ভরসা সিল বাংলাদেশের ইলিশের উপর। কিন্তু সেটাও এখন নিষেধাজ্ঞার কারণে এই বছর ইলিশ হয়ত পাতেই উঠবে না। রমজান মাসে বাংলাদেশে মাছের চাহিদা বাড়ে, অনাবৃষ্টির কারণে এবছর মাছের সরবরাহ কম সেই কারণে দাম ও উর্ধমুখী। মূলত মাছের দাম সাধারণের নাগালের মধ্যে রাখবার জন্যই এই নিষেধাজ্ঞা।

বাংলাদেশে রমজান চলবে আর ও দিন কুড়ি। এখন যেটুকু ইলিশ মোহনা অঞ্চলে ধরা পড়ছে রমজানের পরে সেটা আর মিলবে কিনা এব্যাপারে সন্দিহান তারা।

বছর কয়েক আগে বাংলাদেশ সরকার ইলিশ রপ্তানির উপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল এবং সেই নিষেধাজ্ঞা উঠতে বছর ঘুরে গিয়েছিল। কাজেই এবছর ইলিশ তাদের পাতে উঠবে কিনা এই আশংকা করার যথেষ্ট কারণ আসে তাদের।