ক্যাটেগরিঃ পাঠাগার

 

‘নন্দন’ সাহিত্য, শিল্প ও সংস্কৃতি চর্চার এক মুক্তমঞ্চ। যে কেউ এতে অংশগ্রহন করতে পারেন। যে কেউ লিখতে পারেন ‘নন্দন’-এ।

‘নন্দন’ একটি মুক্তমঞ্চ।

‘নন্দন’ একটি প্লাটফর্ম।

‘নন্দন’ শিল্পচর্চা ও শিল্পবিকাশের শুদ্ধতম প্রয়াস।

শিল্পচর্চা ও শিল্পবিকাশের শুদ্ধতম এই প্রয়াসে যে কেউ অংশগ্রহন করতে পারেন। প্রবীন নবীন চেনা অচেনা আধোচেনা বয়সী কমবয়সী নারী পুরুষ সকলেই অংশগ্রহন করতে পারেন ‘নন্দন’-এ। শর্ত শুধু একটাই- মুক্ত এ মঞ্চ হবে শিল্পচর্চা এ শিল্পবিকাশের প্লাটফর্ম।

আজ যা নতুন, আগামীকাল তা’ই পুরোনো। জীবনের নিয়মতো এরকমই। তবু কখনো সখনো সনাতনকেই মনে হয় আধুনিক, আবার প্রবল আধুনিককেও মনে হতে পারে প্রাচীন। এটাও নাকি নিয়ম।

তবে নিয়ম যাই থাকুক, সত্যি হলো- অনিয়মকেও মাঝে মাঝে নিয়ম বলে মনে হয়।

ধরা যাক কিছু অনিয়মই করা গেলো।

আজকাল ক’জনই আর শিল্প-সাহিত্য, দেশীয় বোধ, নিজস্ব সংস্কৃতি ইত্যাদি নিয়ে উৎসাহী? অনেকের কাছেই হয়তো বিষয়গুলো নিতান্ত ব্যাক-ডেটেট বলে মনে হয়! তবে এটাও সত্যি যে, অনেকেই উৎসাহী। অনেকেই ভাবেন, অনেকেই ধারন করেন। আমাদের প্রচেষ্টা তাদের জন্যই।

তবে, নিঃসন্দেহে, নির্মোহ আমন্ত্রণ সবাইকে।

আমরা চেষ্টা করেছি। হ্যাঁ আমাদের প্রয়াসটা ছিলো আন্তরিক। এবং আছেও আগামীর জন্য। তবে সত্যি বলতে, আমরা যে খুব একটা ভালো পেরে উঠেছি, তা হয়তো নয়। তবে কথা দিচ্ছি, সবার সহযোগিতা পেলে আগামীতে আমরা নিশ্চয়ই পেরে উঠবো।

আপাততঃ আমরা এখানে সমন্বয় করতে চেয়েছি নতুন পুরোনো কিছু বিষয়। কারো চাওয়াই পূর্ণতা পায়নি সে দায় মেনে নিয়েই দাবী করছি, চলুন একবার ঘুরে আসি…

সবাইকে শুভেচ্ছা।