ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

 

সেভ হোম সাধারণ অর্থে বুঝায় সেভ অর্থ নিরাপদ আর হোম অর্থ বাড়ি সেভ হোম অর্থ দাড়ায় নিরাপদ বাড়ি। বাংলাদেশের ধানমন্ডি অবস্থিত যুদ্ধাপরাধীদের জিজ্ঞাসার জন্য স্থাপিত বাড়ির নাম সেভ হোম। অবশ্য সেভ হোম ধানমন্ডির বলা হলেও আসলে সেভ হোম পড়েছে মোহাম্মদপুর থানার মধ্যে। বিএনপি ও জামায়াত দাবী করেছে সেভ হোমে আসলে তাদের নেতাদের নিয়ে টর্চার করা হবে। তাই এর নাম তারা দিয়েছে টর্চার হোম । কথা হচ্ছে কেন সরকারের সেভ হোম দরকার পড়বে বা কেন সেভ হোম জায়গাটি ধানমন্ডি হবে ।

যুদ্ধপরাধীদের ধরা হয়েছে অনেকদিন হয়ে গেল অথচ তাদের নামে এখনো কোন অপরাধ প্রমান হয়নি। তারপর যাদেরকে ধরা হয়েছে তারা ১ম সারির সবাই রাজনৈতিক নেতা। তাদের নিয়ে যেন সরকার নতুন করে বিতর্কে জড়িয়ে না পড়ে সেজন্য সরকারের উচিত সেভ হোম নয় প্রচলিত স্থানে জিজ্ঞাসা করা।

আমার মনে হয়েছে সেভ হোম নাম নিয়েই বিতর্কে সৃষ্টি করেছে সরকার। সরকারের ধানমন্ডি যদি সেভ হোম বা নিরাপদ বাড়ি হয় তাহলে কি বাংলাদেশে অন্য সব স্থান সেভ না ! অনিরাপদ। তাহলে কি সরকার দেশের নিরাপত্তা দিতে পারছে না! তা কি এই সেভ হোম নাম দিয়ে সরকার প্রমান করতে চায় ?

বাংলাদেশে অনেক কারাগার আছে সেখানে অনেক অপরাধীকে জিগ্যেস করা হয়েছে যেমন বঙ্গবন্ধ খুনিদের জন্য তো সেভ হোম এর প্রয়োজন পড়েনি। তাদের তো ঠিকই বিচার হয়েছে ফাঁসি হয়েছে। সরকার কি এই সেভ হোম নাম নিয়ে এক বার ভাববে?

আর রাজধানীতে অনেক জায়গা থাকতে কেন সেভ হোম ধানমন্ডিতে করা হলো। সবাই জানে ধানমন্ডি শেখ হাসিনার বাড়ি রয়েছে তাছাড়া এক বাক্য সবাই বলবে ধানমন্ডি আওয়ামীলীগের এলাকা। আর এখন যেহেতু আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় তা সেভ হোম ধানমন্ডির মত জায়গায় নেওয়া ঠিক হয় নি।

এই বিচার কতটুকু সঠিক বিচার হবে তা হয়ত সামনে দেখা যাবে তবে সেভ হোম যেন আমেরিকার গুয়ানতানামো কারাগার না হয়ে যায়। গুয়ানতানামো কারাগার ইতিহাসের কালো অংশ হয়ে গেছে যে কারাগারে হাজার হাজার নিরপরাধ মানুষকে ধরে এনে নির্যাতন করা হয়েছে আর নির্যাতনের নামে মিথ্যা দোষ স্বীকার করতে বাধ্য করা হয়েছে। সেই রকম যেন বাংলাদেশে সেভ হোম গুয়ানতানামোর মত ইতিহাস না হয়ে যায় সেই দিকে সবার অবশ্য খেয়াল রাখা দরকার।