ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

পুলিশের বাড়াবাড়ি না থাক,পুলিশের কাজ পুলিশ করেছে। তবে এখান কার অনেক ব্লগার এই ঘটনাকে স্বাভাবিক বলছেন। কারন তারা দাবী করেন তারা নাকি মানবতার পক্ষে। এবং এ ব্যাপারে লেখেছেন ও ব্লগে। ধন্যবাদ দিতেই হয় তাদের। তাদের মানবতার ভাষায় একজন মানুষকে মেরে রাস্তায় শুয়ে রাখা যায়। মো ” উ ” নাম ধারী ব্লগারকে শুধু এটুকু বলতে চাই বিডিনিউজ যে ছবিগুলো প্রকাশিত হয়েছে তা কি মিথ্যা ! দেখে আপনার কি মনে হয় দয়া করে লেখবেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গত কাল যে হুঁশিয়ারি দিয়ে ছিলেন তারই প্রতিফলন দেখা গেল সংসদ ভবনের সামনের বকুল তলায় ঘটনায়। কিন্ত কথা হচ্ছে কোন দেশে কি উদাহরণ আছে জুলুম নির্যাতন করে আন্দোলন থামিয়েছে কোন সরকার। শুধু আন্দোলন থামানো যায় আলোচনা করে। দুই পক্ষ যদি ক্ষমতা প্রদর্শন করে তাহলে তো দেশে যুদ্ধ শুরু হবে । একপক্ষকে অবশ্য ধৈর্য্য ধরতে হবে। আর গ্রামের একটি কথা আছে তা হলো বাপের বড় পোলার নাকি অনেক দায়িত্ব থাকে তেমন আমি মনে করি বড় হিসাবে সরকারে অনেক দায়িত্ব নিয়ে কথা এবং কাজ করা উচিত। সংসদ ভবনের সামনে যে ঘটনা তাতে গ্রেফতার না করে কোন পেটানো হলে এটা এখন বড় প্রশ্ন। আর সরকার যেহেতু ভ্রাম্যমাণ আদালত করেছে সেখানে কোন এমন হলো তা দেখার বিষয়।

সরকার যদি মনে করে মার এর মধ্য ভিটামিন আছে তাহলে সেই ভিটামিন খেয়ে আন্দোলন আরো চাঙ্গা হবে। সর্বশেষ কথা হচ্ছে আসুন আমরা আলোচনা করে দেশটা গড়ি। আর যেন কার মাথায় ১১ সেলাই না দিতে হয় সেজন্য আমাদের পুলিশের এই বাড়াবাড়ি তদন্ত করে থামায়। আর সরকার বিরোধীদল সবাই হিসাব করে কথা বলি ।