ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

11037110_10203910981790373_7004467345551694731_n
রুটি মেট এ অনেক ফিচার বাড়ানো হয়েছে। যাহা আমেরিকা বা ইন্ডিয়ার মেশিনে নেই। রুটি তৈরীর প্রধান দুটি বিষয় হল তাপমাত্রা ও সময় সঠিক ভাবে নিয়ন্ত্রণ করা। তারপরে যে বিষয়টি আসে সেটি হল গ্যাস এর ব্যাবহার ও সেফ্টি। এ সকল বিষয় এর উপর বিবেচনা করে পি এল সি অটোমেশন এর মাধ্যমে তাপমাত্রা ও সময় সঠিক ভাবে নিয়ন্ত্রণ করার ব্যাবস্থা করা হয়েছে। সকল মেশিন যাহাতে ২২০ ভোল্টে চলে এবং গ্যাস খরচ সর্বনিম্ন থাকে সেই চেষ্টা করা হয়েছে। আমেরিকার এই মেশিনে ১.৫ কেজি/ঘন্টা, ইন্ডিয়ার এই মেশিনে ২.৫ কেজি/ঘন্টা এবং আমাদের মেশিনে ১ থেকে ১.৫ কেজি/ঘন্টা গ্যাস খরচ হয়।
নতুন ফিচার সমূহঃ
১) ক্লিনিং ও মাসিক, বাৎসরিক রক্ষণাবেক্ষণ এর জন্য সময় মত পিকচার ম্যাসেজ দিয়ে জানিয়ে দেবে।
HMI Touch Screen
২) চারটি স্পিডে মেশিন চালানো যাবে যেমন, ম্যানুয়াল স্পিড, ৯০০ – ৯৩০ স্পিড, ৯৬০ – ৯৯০ স্পিড, ১০২০ – ১০৫০ স্পিড । এবং কত সময়ে কতগুলি রুটি হচ্ছে তা তাতক্ষণিক ভাবে দেখা যাবে।
13
৩) মেশিনের রিয়ালটাইম প্রডাকশন স্পিড কত তা দেখা যাবে। যেমন গাড়ির মাইল মিটার দেখে বোঝা যায় ঘন্টায় কত কিলোমিটার যাবে।
12
৪) রাতে মেশিন চালনার জন্য ওভেনের ভেতর লাইট দেওয়া হয়েছে।
5) অনেক বেশী সেফ্টি ও ওয়ার্নিং এ্যলার্ম ব্যাবহার করা হয়েছে। তাই বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা নাই। কোন সমস্যা হলে সহজেই বোঝা যাবে ।
14
৬) মেশিন চালনা পদ্ধতি, রেসিপি, রক্ষণাবেক্ষণ ও সমস্যা সমাধান মেশিন এর টাচ স্কিন থেকেই দেখা যাবে।
23
৭) আগের মতই রুটি গননা, মেশিন অন, রান টাইম ও টোটাল প্রডাকশন রেকর্ড দেখা যাবে।
3
৮) গ্যাস সিটেম উন্নত করা হয়েছে। যাতে LPG ও NGC ব্যাবহরে বার বার নজেল পরিবর্তন করতে না হয়। পরবর্তি মেশিনের জন্য আরো উন্নত ডিজাইন করা হয়েছে। সয়ংক্রিয় ভাবে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রিত হয়। আগুন সয়ংক্রিয় ভাবে জ্বলে।
gas sys২
৯) প্রেসের সাইজ বড় করা হয়েছে । আগে সর্বচ্চ ৬ ইঞ্চি রুটি হতো এখন ৮ ইঞ্চি রুটি হবে। এবং মেটেরিয়ালের ভোলিয়ুম বাড়ার কারণে নিয়মিত ডো দেয়া যাবে। তাই প্রডাক্শন কম হবার সম্ভাবনা নাই। সয়ংক্রিয় ভাবে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রিত হয়।
press
১০) মেশিনটি আগের থেকে অনেক খোলা মেলা ও হালকা হয়েছে । তাই ওভেনের ভিতরে পরিষ্কার দেখা যাবে ও মেশিন ভাল ভাবে পরিষ্কার রাখা যাবে। ওভেন ও প্রেস টেবিল সহজে আলাদা করা যাবে। সার্কিট বক্স আগের থেকে অনেক পরিচ্ছন্ন ও নান্দনিক হয়েছে।
এছাড়া ডো কাটিং মেশিনের ক্যাপাসিটি বাড়ানো হয়েছে যাতে যেখানে একত্রে দুইটি বা তিনটি রুটি মেশিন চলবে, সেখানে একটি ডো কাটিং মেশিনই যথেষ্ট। এতে ঐ সকল স্থানের জন্য ২ থেকে ৪ লক্ষ টাকা সাশ্রয় হবে। ডো কাটিং মেশিনে কাউন্টার সংযুক্ত করা হয়েছে, যাতে ডো এর পরিমান জানা যায়।
pic-1
আমেরিকার বেসকোর মেশিনে সয়ংক্রিয় তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রন এর ব্যাবস্থা আছে। স্পিড ও কমানো বাড়ানো যায় তবে সেটা একটি নব ঘুরিয়ে করতে হয় তাই সঠিক মাপ একবারে বোঝা যায় না। আগুন হাতে জ্বেলে দিতে হয়।

ইন্ডিয়ান মেশিনে শুধু প্রেস এর সয়ংক্রিয় তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রন এর ব্যাবস্থা আছে। ওভেন এর তাপমাত্রা চুলার মত কম বেশী করে নিয়ন্ত্রন করতে হয়। স্পিড কমানো বাড়ানো যায় তবে সেটা ভি এফ ডি থেকে করতে হয়, তাই সঠিক মাপ একবারে বোঝা যায় না। আগুন হাতে জ্বেলে দিতে হয়। ডো কাটিং সম্পূর্ন ম্যাকানিক্যাল তাই ১২০০ এর বেশী হবে না। তাই প্রতিটি মেশিনের জন্য একটা ডো কাটিং লাগবে।
11173311_10203910981630369_3915580362849224032_n
প্রোগ্রাম পরিকল্পনা ও মেশিন ডিজাইন করেছি আমি জেমস্ মার্টিন অধিকারী।
ধন্যবাদ