ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

বোন মালালা

মনের সাথে যুদ্ধ করে দুর্নিবার কান্না চেপে রেখে তোমাকে লিখতে বসেছি । ভেবেছি অনেকবার যে তোমাকে লিখব না । রাতে দু‘চোখের পাতা এক করতে না পেরে তোমাকে লিখতে বসতেই হলো । ভেবেই চলেছি র্কী অপরাধ তুমি করেছ যে, এতো দুঃখ তোমাকে পেতে হবে ? ঐতিহ্যের কোলে বেড়ে উঠছ জেনেই কী ওদের তোমাকে ভয় ! ভালো কথা, তাদেরও অধিকার আছে তোমার বিরুদ্ধে গলাছেড়ে উচ্চকন্ঠে সমালোচনা করার কিন্তু মানবিক সদাচারের পথে না গিয়ে তারা তোমার ওপর প্রাণ ওষ্ঠাগত করা নিষ্ঠুর আক্রমণ করল ? বিশ্ববাসী অবাক হয়েছে কী না জানিনা, আমি অবাক হইনি। যে লড়াইয়ে তুমি নেমেছ তাতে তোমার দিকে এমন ঘৃণার বুলেট চালানোই ওদের শেষ অস্ত্র ।

তুমি তো সাধ করে মাথা গলাওনি এ লড়াইয়ে ! সারা বিশ্বের সকল মানুষের স্বার্থরক্ষার প্রয়োজনে তুমি এগিয়ে এসেছো । মানুষের মনে জীবনরস সঞ্চার করতেই তো তুমি এ আন্দোলনে সামিল হয়েছ । আমার বিশ্বাস সারা বিশ্বের জনগণ ষোলোআনাই তোমার পিছে রয়েছে । বোন মালালা, তুমি দেখো যত দিন যাবে তত বেশি মানুষ তোমার পাশে এসে দাঁড়াবে ।

তোমার অসামান্য সাহস আর স্হির লক্ষ্যই তোমার আমার প্রতিপালক আল্লাহতায়ালা তোমাকে ফিরিয়ে দেবেন আমাদের মাঝে ।তুমি মুষড়ে পড়ো না । ইস্পাত কঠিন মনোবল নিয়ে জেগে থাকো । দেখো, তাদের পৃথিবী একদিন ছোট হয়ে আসবে । সাহসে বুক বাঁধো তুমি । ন্যায়বিচার ও শান্তির মিছিলে তুমি আমি সবাই যে আছি তা বেশি করে প্রমাণ হলো তুমি বুলেট বিদ্ধ হবার পর । ঘুমিয়ে পড়ো না । জেগে থাকো বোন ।

ইসলামের দোহাই দিয়ে ওরা তোমাকে হত্যা করতে এসেছে অথচ ওদের চিন্তার সাথে আল্লাহপাকের আদেশ নির্দেশ বর্ণনার সাযুজ্য কতটুকু আছে ? অন্ধ কুসংস্কারের আবর্তে থেকে ওরা প্রতিনিয়ত তোমার মতো অসংখ্য মালালাকে হত্যা করতে সমন জারি করবে, তাতে ভয় কি ? তোমার অপরাধের (!) শাস্তিবিধানে তাদের অ-সাম্য নীতিতে কেউ কি একমত পোষণ করে ! তারা মনে হয় প্রতি মুহূর্ত স্নায়বিক পীড়ায় ভুগতে থাকে । তাদের বর্বর নির্দেশের বিপরীতে তুমি আমি সকলেই শান্তির লড়াই চালিয়ে যাব ।যতই যুদ্ধের মহড়া চলুক আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই । চাপিয়ে দেয়া যুদ্ধ হলে সেটা ভিন্ন কথা । শান্তির দাবি নিয়ে চলা দল দিনে দিনে ভারি হবে, নিশ্চয়ই তা জানো ।

পৃথিবীর প্রায় সকল দেশেই রাজনৈতিক ডামাডোল থাকে । কিন্তু তোমার দেশের রাজনীতির জলবায়ু প্রতিটা মুহূর্ত মানুষকে ভীত সন্ত্রস্ত করে রাখে। যে বা যারা ভিন্নমত পোষণ করে তাদের বিরুদ্ধে পুঞ্জিভূত ক্ষ্যাপাটে ক্রোধ নিয়ে হয় বোমা মেরে না হয় শিরশ্ছেদ করে অথবা বুলেটে ঝাঁঝরা করে দিয়ে প্রতিপক্ষকে জিঘাংসার আগুনে জ্বালানো হয় । সকল জাতি-ধর্ম-বর্ণের মানুষের প্রতি যারা ধর্মান্ধ বিদ্বেষ পোষণ করে তাদের বিরুদ্ধে তোমার সামনে শক্ত লড়াই, তোমাকে ভুলে গেলে চলবে না । তোমাকে যেন হতাশার ভাবনা পিষে না ফেলে কখনও কোনোদিন ।

তুমি এমুহূর্তে যে প্রচন্ড নিগ্রহ ভোগ করছ সে তো আমাদেরই জীবন ও স্বাধীনতা প্রাপ্তির জন্য । আল্লাহ তোমাকে এবং তোমার মতো যারা নিষ্ঠুরতম নির্যাতনের শিকার তাদের সকলকে দ্রুত আরোগ্য দান করুন প্রার্থনা করি ।বাকি জীবনটুকু তুমি আমি সকলে নিজের ও পরের প্রতি সৎ থেকে মানুষ হয়ে যেন বেঁচে থাকার চেষ্টা করি ।

আইনগত অধিকার রক্ষার শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে তুমি আবার ফিরে আসবে । ব্যথায় কাতর হবে না তুমি । দ্রুত সুস্হ হও । তোমার প্রতি অশেষ মঙ্গল কামনা আমাদের সকলের । বিডি নিউজ ২৪.কম ব্লগ এবং ব্লগারদের পক্ষ থেকে তোমার প্রতি অফুরন্ত ভালোবাসা । বাংলাদেশের সকল মানুষের পক্ষ থেকে হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা । যে সাহসের পোশাক তুমি গায়ে পরেছ তা তোমাকেই মানাবে ভালো ।

যহরত
১৩/১০/২০১২

ছবি ডয়চে ভেলে থেকে সংগৃহিত ।

* ব্লগার মালেলা ইউসুফজাই পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় তালেবান অধ্যুষিত খায়বার পাখতুন খোয়া প্রদেশের সোয়াত উপত্যকার আন্তর্জাতিক মুখে পরিণত হওয়া কিশোরী । গত মঙ্গলবার তালেবানরা কিশোরী মালেলা কে হত্যার উদ্দেশে মালেলার বুকে ও মাথায় বুলেটবিদ্ধ করে । এখন মালেলার জীবন রক্ষার চেষ্টায় চিকিৎসা চলছে ।