ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

 

বড্ড দেরি হয়ে গেল পাঠক জনপ্রিয়তায় শীর্ষে থাকা অনলাইন পত্রিকা বিডিনিউজ২৪.কম কে তাঁর ষষ্ঠ বর্ষপূর্তিতে শুভেচ্ছা জানাতে । ষষ্ঠ বার্ষিকীর শুভলগ্নে দাঁড়িয়ে বিডিনিউজ২৪.কম । আমাদের ভালবাসা জানাই বিডিনিউজ পরিবারকে । আমার মনে হয় পত্রিকাটি বয়সে নবীন হলেও আপন গর্বের প্রতিষ্ঠানে রুপলাভ করেছে । ইতোমধ্যে পরিচিতি ও স্বীকৃতিও পেয়েছে । ব্যাপকসংখ্যক মানুষ পত্রিকাটিকে আপন হিসেবে গ্রহণ করেছে বলেই এতটুকু অর্জন সম্ভব হয়েছে ।

পাঠক যে পত্রিকাটিকে গ্রহণ করেছে এটাও প্রতিষ্ঠানটির আরেক শক্তিময়তার প্রকাশ । আমরা আশা করব পত্রিকাটি যেন কোনো গোষ্ঠী বা ব্যক্তিসমষ্টি দ্বারা চালিত বা কুক্ষিগত না হয় । পাঠক সমাজের শক্তিকে মূল্য দিয়ে চললে এর পরিচালন ও বিকাশ নিশ্চয়ই কাঙ্খিত পর্যায়ে থাকবে । পত্রিকাটির বিকাশ পর্ব শুরু হয়েছে কি হয়নি তা গুনী পাঠকেরা বিবেচনা করবেন । সেটা গুনীদের কাজ ।

সবচেয়ে বড় কথা হলো অসমাপ্ত সংগ্রাম রয়ে গেছে অনেকগুলো । তার মধ্যে একটি হলো মানবাধিকারের সংগ্রাম । এই সংগ্রামের পক্ষে বিডিনিউজ২৪.কম কাজ করবে আমরা বিশ্বাস করতে চাই । পৃথিবীর এমন কোনো দেশ নেই যেখানে মানবাধিকার পুরোপুরি প্রতিষ্ঠা পেয়েছে আবার এমন দেশ নেই যেখানে মানবাধিকার লঙ্ঘন বন্ধ হয়ে গেছে । দারিদ্র্য, বৈষম্য, নিপীড়নের বিরুদ্ধে কাজ করতে বিডিনিউজ নিরলস থাকবে এটি আমাদের সামাজিক চাওয়া ।

আমাদের চাওয়ার পরিধিকে আপাততঃ বিস্তৃত করতে চাই না । বিডিনিউজ সত্য প্রচার করবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে । গর্বের প্রতিষ্ঠান হয়ে টিকে থাকতে হলে যা করার বিডিনিউজ২৪.কম তাই করবে বলে আস্হা রাখি । আস্হা ও বিশ্বাসের জায়গাটা যেন নড়বড়ে না হয়ে যায় । অন্তহীন প্রত্যাশা করব না বিডিনিউজ২৪.কম এর কাছে । শান্তি ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়তে বিডিনিউজ২৪.কম এর সুচিন্তিত সংবাদ প্রচার ( যা প্রচার করে আসছে), নিবিড় করে তুলতে পারে সকল সম্প্রদায়ের মানুষে মানুষে পারস্পরিক ঐক্য ।

বৈচিত্রময় সংবাদ পরিবেশনে বিডিনিউজ২৪.কম এর সফল পদচারনা সজীবতায় টিকে থাকুক ।