ক্যাটেগরিঃ শিল্প-সংস্কৃতি

 

লালনশাহকে বিকৃতভাবে উপস্থাপনের প্রতিবাদে ঝিনাইদহের হরিনাকুণ্ডু উপজেলা শহরে লালনভক্ত , রাজনীতিবিদ ,স্কুল ও কলেজের ছাত্র ছাত্রীরা মানববন্ধন এবং প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে । হরিণাকুণ্ডুবাসীর ব্যানারে মঙ্গলবার দুপুরে এ প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয় ।

ভারতীয় চিত্রপরিচালক গৌতম ঘোষ পরিচালিত *মনের মানুষ* ছায়াছবিতে বাউল সম্রাট লালনশাহ’কে বিকৃতভাবে উপস্থাপনের প্রতিবাদে কয়েকশ মানুষ এ সমাবেশের আয়োজন করে ।

সমাবেশে অংশগ্রহণকারী হরিনাকুণ্ডু পৌরসভার মেয়র বলেন– লালনশাহ ছিলেন সুফিবাদ ও দেহতত্ত্ববাদের সাধক । তাঁর গান ও লেখায় এই অভিব্যক্তি ফুটে উঠেছে । অথচ তাঁকে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ বানানো হয়েছে । লালনের চরিত্রে বিকৃতি ঘটানো হয়েছে । লালনের জন্মস্থান হরিনাকুণ্ডু উপজেলার হরিশপুর গ্রামে। এ তথ্য ইতিহাস স্বীকৃত হলেও ছায়াছবিতে বিকৃত করে কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়া বলা হয়েছে ।

সমাবেশ থেকে আরো বলা হয়েছে , এখন লালনকে নিয়ে যা করা হচ্ছে তা সবই বাণিজ্যিক। লালনশাহ কে যেভাবে নারীর সাথে জড়িয়ে *মনের মানুষ* ছায়াছবিতে উপস্থাপন করা হয়েছে , তা দুঃখজনক ।