ক্যাটেগরিঃ স্যাটায়ার

অবশেষে সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আবুল আউট হয়েছে। লাইভ সম্প্রচার না থাকায় জানা গেল না ইয়ার্কার, দুসরা, গুগলী কোনটা কাল হল আবুলের। সবচেয়ে বেশিবার লাইফ পাওয়া এই ব্যাটসমানের আউটে ব্লগ, ফেসবুকে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। কি নিয়ে স্ট্যাটাস হবে? কি দিয়ে পোস্ট পূর্ণ হবে? শোকে মূহ্যমান অনলাইন লেখকবাসী। চীনের একটি প্রদেশে দৌড় প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়ে আবুল সবার নজরে আসেন। স্বল্পতম সময়ে ২য় শ্রেনীর কর্মকর্তা থেকে অতি দ্রুত পুঁজির পাহাড় গড়ে ডাক পান বাংলাদেশ মন্ত্রীসভায়। অত্যন্ত দক্ষতার সাথে সাহারা, কামরুল, মিতা আরেক আবুলের সাথে জুটি বেধে মন্ত্রীসভাকে শক্ত ভিতের উপর তৈরী করে দেন। দ্রুত রান নিতে গিয়ে প্রায়ই আউটের সম্ভাবনায় পড়তেন আবুল। কিন্তু বিধাতারা সাহসীদের পক্ষে থাকে এই মন্ত্র জপে একের পর এক রিস্ক নিয়ে আবুল দুর্দান্ত প্রতাপে ব্যাটিং করছিলেন। ক্যারিয়ারের স্বর্ন সময়ে আন্তর্জাতিকভাবেও নজরে আসেন। আউট করার জন্য আন্তর্জাতিক একের পর মারাত্মক বোলার বোলিং করতে থাকেন আবুলের দিকে। কিছুটা পরিশ্রান্ত আবুলকে অধিনায়ক প্রান্ত বদল করে নন স্ট্রাইকে থাকার পরামর্শ দেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি।