ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

বিজ্ঞাপণের ভাষা ও ডিজাইন কি হবে সেটা বেশ কয়েক দিন ধরেই ভাবছিলাম। যখনই লিখতে বসলাম নিজের অযোগ্যতা গুলো নিজেই টের পেতে শুরু করলাম। বেশ কয়েক বার লিখেও প্রকাশ না করে মুছে ফেলি। অবশেষে ভাবলাম ভাষা যেমনই হোক না কেন তথ্য গুলো ঠিকমতো দিতে পারাটাই বড় কথা। বিজ্ঞাপনটা যদি এমন হয় তাহলে কেমন হয় বলুন তো ?

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিম্মোক্ত পদ সমূহে প্রার্থী হবার জন্য দরখাস্ত আহ্বান।

পদ – শিক্ষাগত যোগ্যতা – অন্যান্য যোগ্যতা

১. এমপি : নূণ্যতম স্নাতক (সম্মান) ২য় শ্রেণী — প্রথম শ্রেণীর জাতীয় দৈনিকে কমপক্ষে ১০ টি রাজনৈতিক গবেষণা মূলক প্রকাশনা (প্রবন্ধ) থাকতে হবে।
২. সিটি মেয়র : নূণ্যতম স্নাতক (সম্মান) ২য় শ্রেণী — প্রথম শ্রেণীর জাতীয় দৈনিকে কমপক্ষে ১০ টি নগর উন্নয়ন ও পরিকল্পনা নিয়ে গবেষণা মূলক প্রকাশনা (প্রবন্ধ) থাকতে হবে।
৩. উপ-জেলা চেয়ারম্যান : নূন্যতম স্নাতক (সম্মান) ২য় শ্রেণী — স্থানীয় / জাতীয় দৈনিক / সাপ্তাহিকীতে নিজ জেলা বা উপজেলার জনসাধারণের সমস্যা ও তার সম্ভাব্য সমাধান নিয়ে ৩ টি প্রকাশনা থাকতে হবে।
৪. ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সিটি ওয়ার্ড কমিশনার : নূন্যতম স্নাতক (পাস) /এইচএসসি ২য় শ্রেণী — নিজ নিজ এলাকায় কোন একটি প্রাইমারী বা হাই স্কুলে কম পক্ষে ২ বছর বিনা বেতনে শিক্ষকতার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

বি: দ্র : সংরক্ষিত মহিলা আসনের জন্য যোগ্যতা সমূহ কি সাধারণ আসনের মতই হবে, নাকি ভিন্ন। সেটা সম্মানিত পাঠকদের মতামতের পর প্রকাশ করা হবে।

আমাদের দেশের বিসিএস থেকে শুরু করে অফিস সহকারী প্রতিটি পদে চাকুরীর জন্য একটা নূন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা চাওয়া হয়ে থাকে, আর আমাদের ওই সব কর্মকর্তা বা কর্মচারীদের উপর যারা খবরদারি করে বেড়ান সেই সব নেতাদের চাকুরী পেতে কোন যোগ্যতা লাগবে না এটাতো হতে পারে না। আমার এই কাল্পনিক বিজ্ঞাপনটা যদি একদিন সত্যিই সত্য হয়ে যায় তাহলে আমাদের দেশের সামাজিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে একটা পরিবর্তন আসবে এটা আমি নিশ্চিত। আপনাদের মূল্যবান মতামত বিজ্ঞাপনটাকে আরো সুন্দর ও যুগোপযোগী করে তুলবে আশা রাখি।