ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

বর্তমানে সিমের যে নিবন্ধন করা হচ্ছে সেটা শুধুমাত্র একজন ব্যবহারকারি হিসাবে রেজিস্ট্রেশন হচ্ছে সিমের মালিক হিসাবে নয়। অর্থাৎ সিম যেহেতু আপনি ব্যবহার করছেন তাই আপনার সকল তথ্য চাওয়া হচ্ছে । আমাদের দেশের অলিতে গলিতে যে সকল সিম বিক্রি হয় তার অধিকাংশই প্রায় ৭০% সিমই পূর্বেই নিবন্ধন করা ছিল ( সুত্রঃ দৈনিক ইনকিলাব, ভূয়া নামে ৭০ ভাগ সিমের নিবন্ধন, ৪ অক্টোবর ২০১৫)। সুতারাং যে সকল গ্রাহক সেই সিম কিনছেন তারা এখন সিমের সক্রিয় ব্যবহারকারি হিসাবে রেজিস্ট্রেশন করছেন,যদিও তাদের কাছে সিমের মুল কাগজ আছে, কিন্তু তারা সিমের মালিক না । সিমের মালিক ওই বাক্তি যার ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে সিম রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। ধরি একজন দোকানদার তার নিজের আইডি কার্ড দিয়েই তার দোকানের ১০০০ সিম রেজিস্ট্রেশন করে বিক্রি করেছেন। যার প্রমাণ কিছুদিন আগেই বিটিআরসি’র রিপোর্টে বেরিয়ে এসেছে (সুত্রঃ http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article1030236.bdnews, এক এনআইডি দেখিয়ে ১৪ হাজার সিম)। সুতারাং নিয়ম অনুযায়ী তার বিক্রি করা ১০০০ সিমের মালিক সে নিজেই। এখন যদি এই গ্রাহকের মধ্যে ২০% লোক মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহক হয়ে থাকেন, অর্থাৎ ২০০ মোবাইল ব্যাংকিং এর গ্রাহকের সিম তার নামে। (সূত্রঃ http://techshohor.com/telecom/29169, মোবাইল ব্যাংকিং গ্রাহক এখন আড়াই কোটি, ডিসেম্বর ২০১৪)। আর যেহেতু নিয়ম অনুযায়ী সিমের মালিক চাইলেই যে কোন সময় সিম রিপ্লেস করে নিতে পারেন সেহেতু এই সকল গ্রাহক আসলে কতটা নিরাপদ। তার মানে এখন আসলে যে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য এতো কিছু করা হচ্ছে তা শুধু সরকার অপরাধি সনাক্ত করার জন্য, কিন্তু যারা পূর্ব রেজিস্ট্রেশন করা সিম কিনছে তাদের সিমের মালিকানা ফিরিয়ে দিতে নয়। একজন বাক্তি যদি কয়েক বছর ধরে তার সিম ব্যবহার করে এবং তার মোবাইল ব্যাংকিং করা থাকে, এখন এই বাক্তিকে যদি সিমের মালিক (ধরি দোকানদার যার নামে রেজিস্ট্রেশন করা) ফোন করে বলে আমাকে কিছু দাও তা না হলে আমি সিম তুলে নিবো, এক্ষেত্রে ওই বাক্তির কি করার আছে? কিছুই নেই, কারন সে শুধুই ব্যবহারকারী সিমের মালিক না। সুতারাং রেজিস্ট্রেশন করা হচ্ছে ভালো কথা যাদের বৈধ কাগজ আছে তাদের সিমের মালিক হিসাবে রেজিস্ট্রেশন করা এবং যাদের কাগজ নেই তাদের ব্যবহারকারী হিসাবে রেজিস্ট্রেশন করার সুযোগ রাখাই ভালো । তাহলে সরকারের যেমন সিম ব্যবহারকারীর তথ্য পাবে তেমনি সেই সকল গ্রাহক যারা পূর্বেই নিবন্ধন করা সিম কিনে ঠকেছেন তারাও তাদের সিমের মালিকানা ফিরে পাবে।