ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

আমি ঠিক সুনির্দিষ্ট ভাবে কিছু বলার বা বোঝানোর জন্য লিখছি না। শুধু এই জন্যই লিখা যে আমার এই সামান্য বিষয়গুলা মানতে খুব কষ্ট হয়।

আমরা বাঙালি জাতি। আমি বাঙালি হিসেবে নিজেকে নিয়ে খুব গর্ববোধ করি। আমি নিজেকে সেই জাতি মনে করি, যারা ৫২ তে শুধু মুখের ভাষার জন্য যুদ্ধ করেছিল। আমি সেই দেশের মানুষ, যারা ৭১ এ শুধু মাটির জন্য যুদ্ধ করেছিল। আমি নিজেকে সেই মানুষের উত্তরসুরি মানে করি, যারা নিজের মায়ের জন্য নিজে হাসি মুখে মরতে পারে। আমি বাঙালি। আমি একমাত্র পারি নিজেকে নিয়ে অহংকার করতে। কারন আমার ভাই, আমার বাবা, নিজের রক্ত দিয়ে আমার হাতে একটি লাল সবুজ পতাকা দিয়ে গিয়েছিল।

কিন্তু আমার আফসোস, আমার সেই পতাকা আমি আমার গাড়িতে লাগাতে পারি না।আমার সেই পতাকা আমি আমার বাড়ির ছাদে লাগাতে পারি না। আমি লাগানোর জন্য কিছু সময় লাগে। কিছু বিশেষ দিনে আমি তা পারি। কিন্তু আমার দেশের স্বাধীনতা যারা চায় নাই, তারা যে কোন সময়ে সেই পতাকা উড়াতে পারে। কারন তারাই দেশের মন্ত্রী হয়। সেই সব রাজাকাররা সংসদে বসে আমার জন্য আঈন বানায়। কিন্তু আমার প্রশ্ন হচ্ছে এরা মন্ত্রী হয় কিভাবে? কারন, আমরা ইতিহাস ভুলে যাই ।

আমরা ৫২ ভুলে গেছি। আমরা ৭১ ভুলে গেছি। শুধু তাই নয়, আমরা ভুলে গেছি আমাদের বিগত সরকার কি করেছিল। আরও মজার ব্যাপার হচ্ছে আমরা ভুলে যাব ,আমাদের এই সরকার কি করতেসে।

আজ আমি একজনের কান্না শুনে তার সব অপরাধ ভুলে গেছি। আমি নিশ্চিত , আমি আজ থেকে ৭ বছর পর আবার ভুলে যাব , বর্তমান জনের অপরাধ কি ছিল। কারন ততোদিনে আরেকজনের অপরাধে আমি অতিষ্ঠ । তারা খমতায় আসেন। আবার চলেও যান। এবং যাওয়ার সময় নিশ্চিত হয়ে যান, কোন সমস্যা নাই, মাত্রতো ৫ টা বছর। তারপর আবার সিংহাসন অধিগ্রহন। তারপর আবার রাজা। তারপর ৫ বছর আবার কারাবরণ। তারপর আবার রাজা। এটা একমাত্র সম্ভব কারন, আমি ইতিহাস ভুলে গেছি।

ভাই, আমার একার কথা কিছুই হবে না। আমি জানি। কিন্তু শুধু একটা অনুরোধ। আর যাই করেন, ইতিহাস ভুলে যাবেন না। আমরা বাঙ্গালিরা ভুলোমনা নয়। আসুন আমরা সবাই মিলে এই সত্যটা প্রমান করে দেই।

স্বাধীন বাংলাদেশ চিরজীবী হোক।
গর্বিত বাঙ্গালির গর্ব অটুট থাকুক।

বি দ্রঃ দয়া করে বাঙালি আর বাংলাদেশী এই তর্কে যাবেন না।আমি নিজেকে বাংলাদেশি পরিচয় দিতেই সাচ্ছন্দবোধ করি। তবে আমি অবশ্যই বাঙালি।