ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

 

ভারতের উগ্র হিন্দুবাদী হিসেবে পরিচিত স্বামী অসীমানন্দ মুসলমানদের ধর্মীয় স্থানগুলোতে বোমা হামলার ষড়যন্ত্র করেছিলেন বলে অভিযোগ দায়ের করেছে ভারতের ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি বা ‘এনআইএ’।

গত ১৭ ই মে ‘এনআইএ’র একটি বিশেষ আদালতে এ অভিযোগ দায়ের করা হয় বলে জানিয়েছে ভারতের বেসরকারি টিভি চ্যানেল জি নিউজ। অভিযোগ পত্রে বলা হয়েছে, স্বামী অসীমানন্দ ভারতে মুসলমান হত্যা এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের ব্যাপক ষড়যন্ত্র করেছিলেন। এ সব ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে ২০০৩ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত জনৈক ভারত মোহনলাল ওরফে ভারত ভাইয়ের বাসভবনসহ অন্যান্য স্থানে বৈঠক করেছে স্বামী অসীমানন্দ।

এনআইএ’র অভিযোগ পত্রে আরো বলা হয়েছে, মক্কা মসজিদের মতো ভারতের মুসলমানদের অন্যান্য ধর্মীয় স্থানে বোমা হামলার জন্য নিজ সহযোগীদের উৎসাহ যুগিয়েছেন স্বামী অসীমানন্দ । এ সব কাজের জন্য ৬৫ হাজার রূপির একটি তহবিলও সহযোগীদের কাছে হস্তান্তর করেছিলেন এই উগ্র হিন্দুত্ববাদী নেতা। ৫৯ বছর বয়সী নবকুমার সরকার ওরফে স্বামী অসীমানন্দের বিরুদ্ধে সমঝোতা এক্সপ্রেসে বোমা হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। তিনি স্বামী ওমকারানন্দ ছদ্মনাম ধারণ করে প্রসিদ্ধ হিন্দু তীর্থস্থান হরিদ্বারে আত্মগোপন করেছিলেন। গত বছরের নভেম্বরে তাকে সেখান থেকে আটক করা হয়।

এই রকম একটি বিষয়ের সাথে যদি কোন মুসলমানের জড়িত থাকার সন্দেহও হত, সারা দুনিয়ার মিডিয়া গলা পাটিয়ে তাকে জঙ্গি বলে গালি দিত।

জঙ্গিবাদকে আমি ঘৃণা করি। জঙ্গিবাদের কোন ধর্ম নেই। ওরা সন্ত্রাসী।

আসুন আমরা অসীমানন্দ কে ও জঙ্গি বলি…