ক্যাটেগরিঃ ব্যক্তিত্ব

 

Jasim-Mondol-01

আমাদের দেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের ইতিহাসে বেশির ভাগ নেতৃবৃন্দই এসেছে উচ্চবিত্ত বা চাকরিজীবী পরিবার থেকে। অনেক বিশিষ্ট নেতা এসেছেন তৎকালীন জমিদার শ্রেণী থেকে। মাত্র গুটিকয়েক এসেছিলেন একেবারে মাটির কাছ থেকে উঠে আসা সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষের ঘর থেকে। এর মধ্যে কমরেড জসিম উদ্দীন মণ্ডল ছিলেন অন্যতম। একেবারে সাধারণ পরিবার থেকে এসে কমিউনিস্ট ভাবাদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আজীবন কমিউনিস্ট থেকে যাওয়া কমরেড দের মধ্যে তিনিই ছিলেন ব্যতিক্রমী।

বাবার চাকরী সূত্রে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে শেষ পর্যন্ত কোলকাতায় স্থায়ী হওয়া এক কিশোরের পড়াশুনা আর নয়া হওয়া আজকের জসিমউদ্দিনে পরিণত হওয়া। রাস্তা দিয়ে সেই সময় অনেক মিছিল যেতো, কংগ্রেস, মুসলিম লীগ, সব ভারতের স্বাধীনতার জন্যে জোর আন্দোলনে ব্যস্ত। কিশোর জসিমউদ্দিন কে সেই সব বাবুদের মিছিল আকৃষ্ট করতে পারেনি। একদিন কিছু খেটে খাওয়া মানুষের মিছিল তাকে আকৃষ্ট করলো। যাদের পরনে ভালো কাপড় নেই, পায়ে জুতা স্যান্ডেল নেই কিন্তু আছে খেটে খাওয়া শরীরের আটুট শক্তি। কিশোর জসিম সেই দলের মিছিলে ভিড়ে গেলেন। সেই যে শুরু তা ছিলো তার মৃত্যু পর্যন্ত।

জীবনে বেঁচে জন্য করেছেন শ্রমিকের কাজ। বছরের পর বছর রেলে ইঞ্জিনের বয়লার চালিয়ে ট্রেন কে রেখেছেন সচল, নিজে থেকেছেন সচল, পরিবারের মুখে তুলে দিয়েছেন অন্ন, অন্যদিকে শ্রমিক শ্রেণীর মুক্তির জন্য অবিরল আন্দোলন চালিয়ে গেছেন। আপোষ বা ক্ষমতার লোভ তাকে স্পর্শ করতে পারে নি। দরিদ্রতা তাকে আরো কঠোর সংগ্রামের দিকে নিয়ে গেছে। বাম বা ডানের বিচ্যুতি তাকে নড়াতে পারেনি এক চুলও।

কমরেড জসিম মারা গেলেন। বাংলাদেশের শেষ কমিউনিস্ট চলে গেলেন নয়া ফেরার দেশে। এই কমিউনিস্টের মৃত্যুতে আজ সামাজিক মাধ্যম, সংবাদ পত্রিকায় সব কমিউনিস্টদের ভালো ভালো মন্তব্যে ভরে যাচ্ছে। কিন্তু এই কমরেডের আদর্শ কে ধারণ করে একটি সাচ্চা কমিউনিস্ট পার্টি গড়ে তোলা যায়নি। বা চেষ্টাও হয়নি। আমরা যতোক্ষণ একজন ভালো কবি, নায়ক, নেতা বা গুণী ব্যক্তি বেঁচে থাকেন ততোক্ষণ তার কোন সমাদার করিনা। কিন্তু যখনই তিনি মারা গেলেন তখন তার জন্যে মহা ব্যস্ত হয়ে যাই তার কৃর্তী গুণগানে।

জীবিতকালে যে মানুষটাকে নিয়ে, তার আদর্শ, তার পথচলাকে অনুসরণ করিনি মৃত্যুর পরে তার আদর্শ কে ধরে রাখার, তাকে প্রতিষ্ঠা করার মহান দায়িত্ব নিয়ে বড় বড় কথা বলা শুরু করি। আমরা এক থেকে লক্ষ করার সংকল্পে বলিয়ান হয়ে যাই।

কমরেড জসিম ছিলেন দাদ অয়ালা, পাফাটা, সাধারনের পষাকে আশাকে মোড়া এক সত্যিকারের কমরেড। যার সারা জীবন ছিলো মেহনতি মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের জন্য আন্দোলন সংগ্রাম করে যাওয়ার ইতিহাস। ব্রিটিশ খেদানো, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে বিজয় ছিনিয়ে আনা এবং এদেশে চেপে বসা পাকিস্তানী প্রেত সামরিক স্বৈরাচার হটানোর এক বিজয়ী যোদ্ধার নাম কমরেড জসিম উদ্দিন মন্ডল। লাল সালাম কমরেড। কমরেড জসিম মণ্ডলের মতো নেতার অভাব থেকেই এদেশে কমিউনিস্টদের সমাজ গঠন সম্ভব হয়ে উঠে না।