ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

ইন্ডিয়ার প্রায় সব অনলাইন ও মিডিয়া এক সুধিরকে নিয়ে বাংলাদেশের বিরূদ্ধে মিথ্যাচার করছে। তাদের মিথ্যাচরে পুরো ভারতবাসী এখন বাংলাদেশ বিরোধী।
তারা উগ্র মৌলবাদী।
অনেক পেজ, গ্রুপ ও ওয়েবে তারা বাংলাদেশীদের লাশ চায় বলে ঘোষণা দেয়।
এসব কি?
কি এক মিথ্যে বানোয়াট জিনিস নিয়ে তারা হুমড়ি খেয়ে পড়েছে!

ইন্ডিয়া মিডিয়া ও অনলাইন নেটওয়ার্কগুলোর উদ্দোশ্যে বলছিঃ

কি করে তোমরা এতো মিথ্যাচার কর? কি করে তোমরা রাতকে দিন আর দিনকে রাত বানাও? সুধীর আমাদের মেহমান বৈ শত্রু নয়। মেহমানের অযত্ন বা অপমান বাংলাদেশীরা কখনো করেনা। তোমরা নিতান্ত ভারতে ও অন্যদেশে বাংলাদেশীদের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্যই এমন মিথ্যে বানোয়াট খবর প্রচার করছো।
যে ছবি,ভিডিও তোমরা আপলোড করেছো সেসব বাংলাদেশে নয় ভারতে আগ হতে তৈরিকৃত, যা নিখুঁত ষড়যন্ত্রের ফল।

তোমরা কি ভাব? তোমরা চালাক আর আমরা বা পৃথিবীর সবাই বোকা? আমরা তো বারবার আমাদের মিডিয়াতে দেখছি যে সুধীর ভালো আছে। সে কি করছে তা ও আমারা দেখছি, জানছি। সুধীরও বলেছ কেউ তার উপর হামলা করেনি। স্টেডিয়াম গেট হতে বের হওয়ার সময় উৎসুক দর্শক তাকে ঘিরে আনন্দ ধ্বনি প্রকাশ করে, পরে পুলিশ এসে তাকে সিএনজি ডেকে তুলে দেয়। ঘটনা এ পর্যন্ত শেষ।
আমরা আমাদের সেসব উৎসুক দর্শকদের এমন উগ্রতা সমর্থন করিনা। আমরা তাদের উগ্রতাকে ঘৃণা করি। তাদের চিহ্নিত করে আইনের আয়তায় আনা হোকে সে নিবেদন করি।

অথচ তোমরা এমন ভাবে পোস্টটি করেছো সেই ১৯৪৬ সাল হতে ২০১৫ সাল পর্যন্ত টেনে নিয়ে এসেছো। পারলে ২১১৫ সালকে আগাম টেনে নিয়ে আসতে!
তোমরা খেলায় রাজনীতিও নিয়ে আসলে? কি দরকার ছিল রাজনীতি টানার? বিএনপি, জামাত, এ, সে, তারা, ওরা এ হামলা করেছে।
এসব তোমরা কেমনে জানো, আমাদের দেশে থেকে আমরা জানিনা। আমাদের দেশে খেলাকে আমরা রাজনীতির উর্ধ্বে রাখি। রাজনীতি এক জায়গা আর খেলা এক জায়গা। আসলে এখানে একটা ব্যাপার পরিষ্কার যে তোমরা হারটাকে সহজভাবে নিতে পারোনি! অথচ হার জিত খেলারি অংশ। তোমাদের আচরণ দেখে মনে হয় যে তোমরা গত ১৯শে মার্চে মেলবার্নে চুরির পুনঃরাবৃত্তি চেয়েছ? সেটা এখানে হয়নি বলেই, তোমরা ক্ষেপেছো আর তাই প্রবল মিথ্যাচারে নেমেছো! তোমরা প্রতিবেশী ভারত বাংলাদেশের মানুষের মাঝের বন্ধুত্বটাকে নষ্ট করার পায়তারা করছো! কিন্তু তোমাদের আশা কখনো সফল হবেনা। কারন আমারা বন্ধুত্বের মূল্য কলিজা কেটে দিতে পারি এবং দেই। আর মিথ্যুকের জন্য ঘৃণা ও ঘৃণা রাখি। জয় পরাজয় খেলারই অংশ, সেটা যদি না বুঝো তবে ভাই খেলা দেখা ছেড়ে দাও। এসব মিথ্যে দেশপ্রেম না রটিয়ে, একজন সুধীরের মত দেশ প্রেমিক হও, যে দেশের জন্য তেপান্তরে ছুটে বেড়ায়, যে মিথ্যাচার করেনি।

আশা করি ইন্ডিয়াদের মাঝে সবে মিথ্যে বলেনা,
সত্যবাদীরা এসব ভূয়া অপপ্রচারের তীব্র প্রতিবাদ করবে আমাদের মত। বন্ধুত্ব হবে সুদৃঢ়,
নিপাত যাবে রটানা ও ষড়যন্ত্রকারী।