ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

 

আমরা বাংলাদেশীরা জন্মগতই আবেগি ও হুজুগে। আমরা অনকে আন্দোলনই করি আবেগের তাড়নায় অথবা হুজুগে পরে। তাই ৫২ বা ৭১ এর মত পূর্ণতা পায় না অনেক আন্দোলন, আবেগের মৃত্যু হয় অকালেই…

কিন্তু এবার? এবার কি তাই হবে? না, এবারের আন্দোলন টা অন্যরকম। অবশ্যই অন্যরকম। কারণ ৭১ ফিরে এসেছে এখানে। এই যুদ্ধ রাজাকারদের হাত থেকে দেশকে মুক্ত করার যুদ্ধ। যে যুদ্ধ মুক্তির জন্য, সেটা তো মুক্তিযুদ্ধই। এবার সামনে থেকে নেতৃত্ব দিছে তরুণ প্রজন্ম। তাদেরকে উত্সাহ দিতে স্বর্গ থেকে নেমে এসেছে লাখো শহীদ। এসেছে সেইসব ভাষা সৈনিকরা যারা এই বাংলা ভাষার জন্য জীবন দিয়েছিল। তাদের সবার চোখে আজ আনন্দের অশ্রু। দৃপ্ত কন্ঠে যেন তরুনদের বলছে, ভয় নাই, এগিয়ে যাও, আমরাও আছি এই যুদ্ধে। ধন্যবাদ দিচ্ছে এই প্রজন্মকে যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আজ জাগ্রত, চিত্কার করে যুদ্ধ চালিয়ে যাবার আহবান জানাচ্ছে অবিরত…

বয়সের হিসেবে আমি এখন আর তরুণ নই, তবে নিজেকে আজ তরুণ মনে হচ্ছে, রক্তে অনুভব করছি অন্যরকম এক শিহরণ। তাই সেই সব শহীদদের আহবান আমি শুনতে পাচ্ছি, শুনতে পাচ্ছি তাদের অট্টহাসি, শুনতে পাচ্ছি তারা একসাথে গাইছে বিজয়ের গান, দেখতে পাচ্ছি অশ্রুসজল চোখে উড়াচ্ছে তারা বিজয়ের পতাকা…

আমারও গাইতে হবে সেই গান, উড়াতে হবে বিজয়ের পতাকা, যেতে হবে ‘প্রজন্ম চত্বরে’, কারণ বিজয়ের সূর্যটা যে উকি দিচ্ছে সেখান থেকেই…