ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

 

ইব্রাহিম খালেদ এখন হট নিউজ – এটাই মনে হয় বিকলাঙ্গ বুদ্ধিজীবিতার প্রশ্ন। বোঝা যাচ্ছে ভ্যালু এ্যাডেড নিউজের প্রকরণ সম্বন্ধে নতুন করে গো-এষণা প্রয়োজন। ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের মধ্যে কোনটা প্রাণী – রাগ-ক্ষোভ বর্জিত – এমন বটতলার দর্শন চর্চা হতে পারে পত্রিকা-অফিসে, সাতসকালে প্রিন্টেড খবর সরবরাহের নিরিখে, কিন্তু প্রতিনিয়ত নিউজ বিচ্ছুরণের ডামাডোলায় সেসব ব্যাকডেটেড নিঃসন্দেহে।

ইব্রাহিম খালেদ অতিশয় সজ্জন ব্যক্তি। তিনি নিউজ উত্পন্নের ব্যবসার সাথে জড়িত নন। কিন্তু তার উদগিরণ কোনো রাজনীতি ‌বিপনন মুখী উদ্ধৃতির সাথে লটরপটর হয়ে গেলোও তিনি সাবজেক্ট হিসাবে কালিমালিপ্ত হন না। তারপরেও তার নিউজ বিতরণ বা ম্যাটার হবার অর্থ শেয়ারের উদারনৈতিক ফসল আঁচল বন্দী করার অর্থপূর্ণ শালিসের শিকার, প্রকারন্তরে যা ঘটতে পারে পেটিকোট তলে, এর সাথে মিডিয়ার কোনো সম্ভোগ থাকলেও থাকতে পারে। তবে বিরোধপূর্ণ মিডিয়া এতে ফায়দা লুটে কিছুটা প্রোপাগান্ডার রসদ পেতে পারে, প্রতিপক্ষের উপরে। পাবলিক সেদিক থেকে ‘ঐ’ অপ্রকাশিত নথির দিকেই কেবল দৃষ্টি দিয়ে বসে আছে, ইব্রাহিম খালেদকে হিরো বানিয়ে লাভ নাই। আমাদের চাই নথি-উন্মোচন, ইব্রাহিম খালেদকে মহীয়ান অথবা অমহীয়ান হিসাবে প্রতিষ্ঠার লম্ফঝম্ফ মিডিয়া পরিত্যাগ করুক। হিজ পার্ট ইজ ওভার।

***
ফিচার ছবি: ইন্টারনেট