ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 

স্পিকারের ড্রাইভার পরিচয় দিয়ে রুবেল নামে এক ব্যক্তি আজ বিকাল সোয়া পাঁচটায় সংসদের সম্মুখস্থ ‘রাজধানী স্কুল’ এর গেটের সামনে নৃত্যশিল্পী শিবলী মোহাম্মদ ও শামিম আরা নিপার পরিচালিত নাচের স্কুল ‘নৃত্যাঞ্চল’ এ আগত এক অভিভাবক ও তার ১৩ বছর বয়সী মেয়েকে নাকি প্রকাশ্যে ইভ টিজিং করেছে, চরমতম অশ্লীল কথা বলে যৌন নির্যাতন চালিয়েছে। আক্রমণের শিকার মহিলা রুখে দাঁড়ালে গাড়ির হাটের ড্রাইভারদের সাথে নিয়ে ক্ষমতাশালী ঐ ড্রাইভার তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে, চড় মারে এমনকি তাকে ও তার মেয়েকে সংসদের মধ্যে উঠিয়ে নিয়ে ছিরে খাবার হুমকি দেয়। এই ঘটনা ঘটেছে শিবলীর স্কুলে আগত ১০/১২ জন অভিভাবকের সামনে, যারা চড় মারার দৃশ্য দেখেছে। পরে অভিভাবকরা প্রতিবাদ করলেও শিবলী স্কুলের বদনাম হওয়ার ভয় দেখিয়ে পুলিশের সাথে মিলেমিশে দায়সারা গোছের একটা সমঝোতা করে ঘটনাটা চাপা দিয়েছে। শিবলী ভুক্তভোগী মহিলাকে নাকি এ নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার পরামর্শও দিয়েছে। কিন্তু অভিভাবকরা তীব্র নিন্দা জানিয়ে শিবলীকে এই ঘটনা এড়িয়ে না যাবার জন্য জোরালো দাবী জানাতে থাকে।

তবে শেষ পর্যন্ত জানা যায় নাই – স্পিকারের রুবেল নামে এমন কোনো ড্রাইভার আসলেই আছে কিনা, অথবা যে ড্রাইভার এই দু:সাহসিক কাণ্ড এত মানুষের সামনে, সংসদের সামনেই ঘটালো তার শক্তির উৎস কোথায়। কেনই বা পুলিশ থেকে শুরু করে সবাই এড়িয়ে গেলো।

পত্রিকার লোকজন শিবলীকে ধরলে এবং স্কুলের অভিভাবকদের জিজ্ঞেস করলে হয়তো আরো বড় কোনো দুর্ঘটনার হাত থেকে এক মা ও তার শিশু সন্তানকে বাঁচাতে পারবেন। নইলে অচিরেই হয়তো আমাদের শুনতে হতে পারে আরো একটা ধর্ষণের কথা, খোদ রাজধানীর বুকে, সংসদের সামনে এবং স্পিকারের ড্রাইভার পরিচয় দেয়া এক শুয়োরের হাতে।