ক্যাটেগরিঃ পাঠাগার

AchenaYatri

চিন্তাজগতকে, মননকে একেকবার একেকভাবে প্রত্যাহবান করছে অচেনা যাত্রী। কড়ে গুণলে অচেনা যাত্রী টিমের সাথে পরিচয় খুব বেশি দিনের নয়, তবে আন্তরিক যোগাযোগে মনে হয়, অচেনা যাত্রীকে অনেকদিন ধরে চিনি। আসলে এই অনলাইন সাহিত্যপাতাটি মাঝেমধ্যেই খুলে পড়া হত, লেখার সুযোগ হয়েছিল জুন সংখ্যায় কবি বিষ্ণু বিশ্বাসকে নিয়ে। সেবার লেখাতেও সেই অনুভূতি প্রকাশ করেছিলাম। কিন্তু এরপর অচেনা যাত্রী’তে কী লিখতে পারি আমি আর? কবিতা? নিয়মিত ওটাই তো লিখি। কিন্তু না। অচেনাযাত্রী ঘোষণা দিল অণুগল্প সংখ্যা করবে। আমি চুপ ছিলাম তাই শুনে। গল্পটল্প আমার দ্বারা লেখা হয় না। উল্টো আমি ভেবেছি, চাকুরে জীবন থেকে অবসর নেব বছর দুয়েকের মধ্যে, তারপর প্রকৃতির কোন নির্জন কোণে বসে কেবল গল্পই লিখব। এই রকম নাটকীয় আবহ ছাড়া এখনকার ছকে গল্প লেখা শুরু করলেও শেষ করা হবে না সেটা কয়েকবার চেষ্টা করেই বুঝেছি। এখনও কিছু গল্প আধাখেচড়া হয়ে পড়ে রয়েছে, তা সে দু’তিন বছর তো হবেই!

আমার অবকাশ যাপন পরিকল্পনায় বাধ সাধল অচেনা যাত্রী। দুম করে বলল, অণুগল্প লেখেন? ২০০ শব্দের আশপাশে অণুগল্প লিখতে হবে। আমার তো আক্কেল গুড়ুম দশা। গল্প লিখব? সে তো দু’বছর পরের আলাপ! তাও আর অণুগল্প! আবার শব্দ গুণে! কী ভীষণ চ্যালেঞ্জ!

কিন্তু মগজে ততক্ষণে পুশইন হয়ে গেছে অণুগল্প লিখতে হবে! সারাক্ষণ অণুগল্প, অণুগল্প জপ করলাম। তারপর একটা লিখতেও বসলাম। লিখতে বসে দেখলাম, আমি লিখে যাচ্ছি। নিজেকে জোর করে থামিয়ে শব্দ গুণে দেখলাম ২০০ শব্দ ছাড়িয়ে গেল। গল্পটা শেষ হল বটে, কিন্তু ২০০ শব্দে হল না! এখন কী হবে? অচেনা যাত্রীর আহবান, মানে প্রত্যাহ্বান তখনও মগজে ঘুরপাক খাচ্ছে, অণুগল্প! অণুগল্প! নিজেকে একদিন বিশ্রাম দিয়ে আবার লিখতে বসলাম এবং তারপর একটা নয়, দু’টো অণুগল্প লিখে ফেললাম! আর কী কেলেংকারি! অচেনা যাত্রী এবারের অণুগল্প আগস্ট সংখ্যায় সেই দু’টো অণুগল্প ছেপেও দিল।

প্রিয় পাঠক এবং সহ-ব্লগারবৃন্দ, অণুগল্পে ঝাঁপি খুলে পড়তে চাইলে এবারের সংখ্যাটা পড়ে দেখুন। অনেক লেখকের অণুগল্প পাঠের সুযোগ হবে। একই সাথে অণুগল্প নিয়ে দু’টো প্রবন্ধ্ও রয়েছে। আরো পড়তে পারবেন একটি অণুগল্পগ্রন্থ। এ সংখ্যায় যারা লিখলেন-

অণুগল্প বিষয়ক প্রবন্ধঃ অণুগল্প, ব্যস্ত সময়ের ফসল//রূপাই পান্তি , “জীবন এত ছোট কেনে”//দেবশ্রী ভট্টাচার্য
অণুগল্পঃ শিমুল মাহমুদ, বিভাস রায়চৌধুরী, নাজনীন খলিল, সুবীর সরকার, পিন্টু রহমান,বিশ্বজিৎ কর্মকার, অমিতাভ দাস, আইরিন সুলতানা, শঙ্কর দেবনাথ, সপ্তর্ষি মাঝি, অসিত ঘোষ, মৌসুমী রায়ঘোষ,মৈনাক আদক
অনুদিত অণুগল্পঃ লিলিয়ানা ভারেলা// ভাষান্তরঃ মৈনাক আদক , পাওলো কোয়েলো// ভাষান্তরঃ সায়ন্তনী নাগ
অণুগল্পগ্রন্থঃ বসন্তের ঘরবাড়ি// অমিতকুমার বিশ্বাস

এই সংখ্যাটিতে স্মরিত হয়েছেন সদ্যপ্রয়াত কালজয়ী কবি নবারুণ ভট্টাচার্য

অচেনাযাত্রী’র অণুগল্প সংকলন আগস্ট সংখ্যা পাবেন এই লিংকে – http://achenayatri.blogspot.com

অণুগল্প নিয়ে পরমাণুসহ আগ্রহ থাকলে, এই সংখ্যাটি আপনার পাঠকহৃদয়কে তৃপ্ত করবে।

আর আমার লেখা দু’টো অণুগল্প পড়া যাবে এই লিংকে – http://achenayatri.blogspot.com/2014/07/blog-post_88.html