ক্যাটেগরিঃ স্বাধিকার চেতনা

 

সপ্তাহ খানেক আগে ব্লগার তাজা কলম মারফত আয়োজনের কথা জানতে পারি। বিস্তারিত জানতে চাইলে, সেখান থেকে সৈকত হাবিবের সাথে কথা। তিনি উদ্যোক্তা অথবা উদ্যোক্তাদের একজন। তিনি কবি ও সাংবাদিক হিসেবে পরিচিত। যতদূর জেনেছি এখন পর্যন্ত অনেক ব্লগারদের এই মুক্তআলোচনায় অংশগ্রহণে আহবান জানানো হয়েছে। বাংলা ব্লগ প্লাটফর্ম হিসেবেও যোগাযোগ করা হয়েছে। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম ব্লগে লাইভ স্ট্রিমিং বক্স দেখতে পাচ্ছি। তারমানে আগামিকাল অর্থ্যাৎ শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারি ২০১২ তারিখের আলোচনাটি লাইভ দেখা যাচ্ছে। সোশ্যাল মুভমেন্টকে প্রোমোট করতে কমজগৎ লাইভ স্ট্রিমিং খাতে যে ব্যয় হবে তার সামান্যই সার্ভিস চার্জ হিসেবে নিয়েছে বলে জেনেছি।

ফেসবুকে একটা ইভেন্ট পাতা দেখলাম – যুদ্ধাপরাধের বিষয়ে ব্লগারদের অংশগ্রহণে বিশেষ বৈঠকী

আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজক ’স্বপ্নের স্বদেশ – মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের সামাজিক ফোরাম ‘ অনুষ্ঠান বিষয়ক মুখবন্ধে জানাচ্ছে –

বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দেশপ্রেমিক জনগণের দীর্ঘদিনের ন্যায্য দাবি। আর এই সময়ে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ক্ষমতাসীন এবং এই বিচারে তারা প্রতিশ্র“তিবদ্ধ ও উদ্যোগী। কিন্তু যুদ্ধাপরাধী জামায়াত-শিবিরের বিভিন্ন অপপ্রচার, প্রধান বিরোধীদল বিএনপির সরব প্রশ্রয়, স্বাধীনতাবিরোধীদের তৎপরতা এবং বিচার-উদ্যোগী আওয়ামী লীগ সরকারের বিরুদ্ধে তাদের বিভিন্ন কার্যক্রমে জনমনে সন্দেহ রয়েছে যে, আদৌ এই সরকারের আমলে বিচার সম্পন্ন হবে কিনা।

অন্যদিকে তথ্যপ্রযুক্তি-প্রজন্ম বাংলাদেশের সামাজিক-সাংস্কৃতিক, কখনো কখনো রাজনীতির ক্ষেত্রেও পরোক্ষ ভূমিকা পালন করে থাকে। তারা তরুণ প্রজন্মকে বিভিন্ন বিষয়ে কেবল সচেতনই করে না, জনমত গঠনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

সারা পৃথিবীতেই ব্লগার কমিউনিটি এই কাজটি করে চলেছে। বাংলাদেশেও কয়েক হাজার ব্লগার রয়েছেন, এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে তারা প্রভাবশালী ভূমিকা রাখছেন। সেহেতু বর্তমান সরকারের প্রধান স্লোগান ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ আর ব্লগাররা ডিজিটাল প্রজন্মেরই সক্রিয় প্রতিনিধি এবং শিক্ষিত ও সচেতন তরুণ জনগোষ্ঠীতে তাদের বড় ধরনের প্রভাব রয়েছে, তাই যুদ্ধাপরাধ ইস্যুতে তাদের সম্মিলিত কণ্ঠস্বর একটা ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তারা হলেন –

মূল প্রবন্ধ
আইয়ুব হোসেন

প্রধান অতিথি
নাসির উদ্দীন ইউসুফ বাচ্চু

সভাপতি
ডা. এম এ হাসান

আলোচক
দেশের আলোচিত ব্লগার, ফেসবুকার ও সচেতন অ্যাকটিভিস্ট,
শিক্ষক, গণমাধ্যম ও সংস্কৃতিকর্মীরা

অনুষ্ঠানের সময়সূচী ও স্থান:
ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি সেমিনার হল (নিচতলা) , সেগুনবাগিচা (মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের কাছে)
শুক্রবার, ১৩ জানুয়ারি ২০১২
২:০০টা – ৫:০০টা

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ব্যবস্থা, সাক্ষ্য-প্রমাণ উপস্থাপন, বিচারের দাবিতে গণজাগরণ ইত্যাদি বিষয়ে একটি তাৎপর্যপূর্ণ আলোচনা হবে এমনটি আগামিকাল উপস্থিত প্রধান বক্তা ও ব্লগারদের কাছে প্রত্যাশা থাকছে।