ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

 

ব্লগার কালপুরুষ এর ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে জানতে পারি থানচিতে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রায় ১৩ জন মারা গেছে। তিনি অতিশয় দু:শ্চিন্তা ও দু:খ ভারাক্রান্ত হয়েই খবরটা শেয়ার করেছিলেন , কারণ ফেসবুক ভিত্তিক ট্রাভেলার্স অব বাংলাদেশ গ্রুপের কিছু সদস্য (যাদের সাথে তিনি সহ ফেসবুক ও ব্লগে অনেকেই ব্যক্তিগতভাবে পরিচিত) দুর্ঘটনা কবলিত বাসের আরোহী ছিলেন। জানা গেছে বাসে সর্বমোট যাত্রী ছিল ৩৬/৩৭ জন, এবং ট্রাভেলার্স অব বাংলাদেশ গ্রুপের ৫ জন্য সদস্য ছিল ওই বাসে।

টিভি সংবাদে এরপর স্ক্রলিং নিউজে দেখলাম ১৭ জন মারা গেছে ওই সড়ক দুর্ঘটনায়। ব্লগার কালপুরুষ এর স্ট্যাটাস থেকে জানতে পারলাম –ব্লগার দুখী মানব (সালেহীন আরশাদি) গুরুতর আহত।

ট্রাভেলার্স অব বাংলাদেশ গ্রুপের দু’জন সক্রিয় সদস্য মুগ্ধ ও সুজন মারা গেছেন বলে জানতে পারলাম।


[মুগ্ধের ফেসবুক প্রোফাইল]

বিভিন্ন ভ্রমণের সহযাত্রী বন্ধুরা মুগ্ধ ‍ও সুজনকে হারিয়ে শোকচিহ্ন ধারণ করেছে। মুগ্ধের ফেসবুক ওয়ালে বন্ধুদের শোকাহত বার্তা দেখা যাচ্ছে।

ToB এর ফেসবুক গ্র্রপ পাতায় চন্দন খান ৫ ঘন্টা আগে তথ্য দিয়েছিলেন দুর্ঘটনা সংক্রান্ত । তিনি জানিয়েছিলেন –

থানচি থানার ওসি নিয়ামত করিম বলেন, ঘটনাস্থলে মারা গেছেন থানচি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি উহ্লাচিং (৬১) ও তার মেয়ে কিকিনু মারমা (১২), কারিতাসের কর্মী সুশান্ত ত্রিপুরা (২৬), কান্তি ত্রিপুরা (২৫), মাসাথুই মার্মা (৪৫), রিংটু চাকমা (৩৫), মংচিংচা মারমা (৪৫), পর্যটক রাজিব চৌধুরী, হাসান, সুজন ও ডা. তাসবিদ রেজওয়ান মুগ্ধ (৩২)।

Mohammad Zafar Tripura ওই গ্রুপ ওয়াল পোস্টে আরো যোগ করেন –

আওয়ামী লীগ সভাপতি উহ্লাচিং (৬১) tar arek meye CMC te ache.

আওয়ামী লীগ সভাপতি উহ্লাচিং (৬১) তার আরেক মেয়ে সিএমসিতে আছে।

৫৮ মিনিট আগে গ্রুপ পাতায় Mohammad Zafar Tripura ‘র দেয়া একটি ওয়াল পোস্ট থেকে জানা যায় সুজন ও মুগ্ধের মরদেহ ঢাকার পথে। তবে সুজন এর মামা মৃতদেহ বরিশাল নিয়ে যাবেন।

গ্রুপের ফেসবুক ওয়ালের পোস্টগুলো স্ক্রল করতে করতে একটি পুরনো পোস্টে চোখ আটকে গেল। গত শুক্রবারের একটা ছোট স্ট্যাটাস ছিল, ফজলে রাব্বির দেয়া। বোঝা গেল বন্ধুদের ভ্রমণ নিয়ে মজা করেই ফজলে রাব্বি লিখেছিলেন,

ToB er ekta team haraye gese (Salehin, Mughdho, Mainul, Sujon)….. keu unader bandarbaner kono chipay dekhe thakle update janaben plz.

ToB এর একটা টিম হারিয়ে গেছে (সালেহীন, মুগ্ধ, মাইনুল, সুজন)….. কেউ উনাদের বান্দরবনের কোন চিপায় দেখে থাকলে আপডেট জানাবেন প্লিজ।

ওই স্ট্যাটাসেই আলোচনা চলাকালে শুক্রবার, বিকাল ৩:৩৬ মিনিটে ফজলে রাব্বি লিখেছিলেন –

call disilo kotha sona jay na. Tar mane beche ache

কল দিসিল, কথা শোনা যায় না। তারমানে বেঁচে আছে

শুক্রবার বিকাল ৫:৫০ মিনিটে মোবাইল থেকে দেয়া এক আপডেটে ফজলে রাব্বি জানাচ্ছিলেন –

Team is at thanchi now. Tomorrow morning they will start from thanchi-dhaka

দল এখন থানচিতে। আগামিকাল সকালে তারা থানচি-ঢাকার পথে রওয়ানা করবে।

আজ ৭ ঘন্টা আগে ওই একই পোস্টে Tanvir Hussain বেশ বিস্ময় নিয়ে মন্তব্য করেছেন –

Ei post ta true hoilo keno?
may allah help them.

এই পোস্টটা সত্যি হলো কেন?
সৃষ্টিকর্তা তাদের সহায় হোন।

বিষয়টা নেহায়েত কাকতালীয় ঘটনা , বলা ভাল দুর্ঘটনা! সৃষ্টিকর্তা অত্যন্ত মর্মান্তিকভাবে মজাচ্ছলে লেখা একটা কথাকে সত্যিতে পরিণত করে দিলেন! তবে হতবিহ্বল হয়ে ওঠার মত পর্যবেক্ষণ হলো, মোড়ে মোড়ে মৃত্যু ওঁত পেতে আছে! আমরা ক্রমাগত আমাদের মেধাবী, কড়িৎকর্মা, তারুণ্যদীপ্ত প্রিয়জনদের হারিয়ে ফেলছি সড়ক দুর্ঘটনায়! প্রতিবার প্রশ্ন উঠছে, এর কি কোন প্রতিকার নেই? শোক চাপা পড়ে যাচ্ছে সময়ের বাস্তবতায়। তারপর আবার আরেকটা দুর্ঘটনা!

থানচি থানার ওসি নিয়ামত হোসেন বলেন, পাহাড়ি পরিবহনের বাসটি থানচি থেকে বান্দরবান যাচ্ছিল। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে শিলাঝিরি এলাকায় পৌঁছানোর পর চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি রাস্তার পাশে কয়েকশ ফুট গভীর খাদে পড়ে যায়।

(বিস্তারিত খবর)

***
আপডেট-১: ১৬ জানুয়ারি ২০১২, সন্ধ্যা ৭:১৬

ToB ফেসবুকে গ্রুপের সদস্যারা বিভিন্ন সময় আহত ও নিহতদের নিয়ে আপডেট জানাচ্ছেন।

ঘন্টাখানেক আগে Zaqiul Deep লিখেছেন –

the janaja of Tarikul Alom Sujon will be held tomorrow at 10am at Barisal Gorosthan Mosjid ( anjuman mofidul islam’er maath ) .. and his body will be buried after the janaja at barisal gorosthan ..

তরিকুল আলম সুজনের জানাজা আগামিকাল সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে বরিশালের গোরস্তান মসজিদে (আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামে’র মাঠ) .. এবং জানাজার পর তার মরদেহ দাফন করা হবে বরিশাল গোরস্থানে।

Mitu Hassan গতকাল গ্রুপের ওয়ালে পোস্ট দিয়ে জানিয়েছিলেন –

মুগ্ধ ভাই কে আজিমপুর কবরস্থান এ দাফন করা হয়েছে। জোহরের নামাজের পর ওনার বাসার পাশেই অবস্থিত গাবতলা মসজিদে জানাজা পড়ানো হয়। এর পরই ওনাকে নিয়ে যাওয়া হয় আজিমপুর কবরস্থানে। আল্লাহ যেনো ওনাকে বেহেশতবাসী করেন এই দোয়াই করবেন সবাই।

***
আপডেট-২: ১৬ জানুয়ারি ২০১২, সন্ধ্যা ৭:২৫

৩ ঘন্টা আগে একটি মন্তব্যে আহত এস এম মইনুলের বর্তমান শারীরিক অবস্থার কথা জানিয়েছেন Mizanur Rahman। Nahid Hassan Palash ৬ ঘন্টা পূর্বে এ তথ্যটি সবাইকে অবহিত করেন।

বর্তমানে সে সহরোওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। তার পা ভেঙ্গে গিয়েছে। এছাড়াও তার কিছু ইন্টারনাল ব্লিডিং এর কারনে চোখ রক্তের মত লাল হয়ে আছে প্রথম দিন থেকেই। ডাক্তারগন বলেছেন তার অবস্থা উন্নতির দিকে। প্রচন্ড সাহস ও মনোবলের কারনে সে দ্রুত সুস্থ হয়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেছেন।

ব্লগার দুখী মানব (সালেহীন আরশাদি) -এর শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানিয়েছেন Nahid Hassan Palash। প্রায় ৭ ঘন্টা আগে দেয়া একটি ওয়াল পোস্টে তিনি লিখেছেন –

Salehin ke ektu por cabin e nie asa hobe. Or pelvic er multiple fracture chara r kono injury paoa jai ni. Pelvic er fracture er jonno prathomic vabe operation na kore trackson deo hobe. Sustho hote ektu shomoy lagbe bole doctor ra janieche. Aj theke oke liquid khete dibe. Or obostha ekhon onek stable. Internal bleeding bondho hoeche. Sobai or jonno doa korben.

সালেহীন কে একটু পর কেবিন এ নিয়ে আসা হবে। ওর পেলভিক এর মালটিপল ফ্র্যাকচার ছাড়া আর কোন ইনজুরি পাওয়া যায়নি। পেলভিক এর ফ্র্যাকচার এর জন্য প্রাথমিক ভাবে অপারেশন না করে ট্র্যাকশন দেয়া হবে। সুস্থ হতে একটু সময় লাগবে বলে ডাক্তাররা জানিয়েছে। আজ থেকে ওকে লিকুইড খেতে দিবে। ওর অবস্থা এখন অনেক স্ট্যাবল। ইন্টারনাল ব্লিডিং বন্ধ হয়েছে। সবাই ওর জন্য দোয়া করবেন।