ক্যাটেগরিঃ সামহোয়ারইন ব্লগ

আমার ভাগনে থাকে ত্রিপোলিতে, গতকাল থেকে চেষ্টা করতেছি কথা বলার জন্য কিন্তু কোন ভাবেই মোবাইলে লাইন পাচ্ছি না। আপনার ভাই এর সাথে কিভাবে কথা বললেন জানাবেন কি দয়া করে ?

এই উৎকণ্ঠা প্রকাশ পেয়েছে ব্লগার বিজ্ঞান এর মন্তব্যে। সাম্প্রাতিক সময়ে আরব ভূখণ্ডে ধারাবাহিক গণবিপ্লবের ছোঁয়া লেগেছে লিবিয়াতে। ব্লগার হাসান ইকবাল এর পোস্ট থেকে জানা যায়, লিবিয়ায় ৮৯ হাজার বাংলাদেশি নাগরিক বসবাসরত। লিবিয়ায় অবস্থানরত এসব বাঙালিরা যেমন উৎকণ্ঠায় দিন যাপন করছেন, তেমনি বাংলাদেশে তাদের পরিবার-পরিজন-বান্ধবরাও চিন্তিত লিবিয়ায় অবস্থানরতদের নিরাপত্তা নিয়ে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,লিবিয়া থেকে বাংলাদেশিদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, লিবিয়ার বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত ও বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমরা জোড় আবেদন জানাচ্ছি।” শিরোনামের পোস্টটিতে ব্লগার হাসান ইকবাল সরকারকে এই বিষয়ে তড়িৎ ব্যবস্থা নেয়ার আবেদন জানিয়েছেন। পোস্টটি থেকে জানা যায়, এখন পর্যন্ত ,

সবাই ঘরে বন্ধী…চারপাশে ছড়িয়ে পড়েছে বিক্ষোভ…..দোকানপাট বন্ধ…..সব রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ…খুব বিপদজনক….কারো সাথে যোগাযোগ করা যাচ্ছেনা…mobile network, Internet বন্ধ….বিমানের টিকেট কেটে বাংলাদেশে আসার কোনো situation নাই। … … …সেখান থেকে বাংলাদেশিদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার কোনো initiative দেখা যাচ্ছেনা। … …

উল্লেখ্য যে,

লিবিয়ায় বসবাসরত অন্যদেশের নাগরিকদের তাদের নিজ নিজ দেশের সরকার নিরাপেদ দেশে সরিয়ে নিয়েছে।

ব্লগার হাসান ইকবাল এর পোস্টে ব্লগার পাখা মন্তব্য করেন,

কিছু ক্ষন আগে NDTV খবরে দেখলাম ভারত সরকার তাদের যাত্রীবাহি বিমানকে প্রস্তুত থাকতে বলেছে লিবিয়া থেকে তার দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনতে..
কিন্তু লিবিয়া কোন দেশের বিমানকে তাদের বিমান বন্দর ব্যাব হার করার পারমিশন দিছে না..
তাই বিকল্প হিসাবে জাহাজের মাধ্যমে নৌ পথে তাদের কে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিবে..

আমাগো ম্যাংগো পাবলিকের সরকার আওদো কি কিছু চিন্তা করছে…

—————————————————————————————————————————————————-
মূল পোস্টঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,লিবিয়া থেকে বাংলাদেশিদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, লিবিয়ার বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত ও বাংলাদেশ সরকারের কাছে আমরা জোড় আবেদন জানাচ্ছি।