ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

মাঝে মাঝে সরকার প্রধানদের বক্তব্য, প্রতিজ্ঞা, প্রত্যাশার বানী এগুলো নিছক কথার কথা মনে হয় । ইদানিং কালে আর কোন কথায় আর বিশ্বাস হয় না এবং সত্য কথা বলছে বলে মনে হয় না । সবকিছুকেই চরম মিথ্যাচার বলে মনে হয় । সবাই মুখে মুখে বলে- সদা সত্য কথা বলা উচিৎ কিন্তু সবকিছুতেই মিথাচারের জয়জয়কার । যে যতবেশী মিথ্যাকথা বলতে পারে সে ততবেশী ক্ষমতাবান ।

গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে সাধারন জনগন সবর্ময় ক্ষমতার অধিকারী বলা হয় । বাংলাদেশ একটি গণপ্রজাতান্ত্রিক রাষ্ট্র– সবাই বলে এবং কাগজে, কলমে, দেশে বিদেশে সারা বিশ্বে পরিচিত গনতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসাবে । অথচ যা দেখি তাতে এতটুকুও তা মনে হয়না অন্তত আমার কাছে । আমি যা দেখি তাতে মনে হয় গনতন্ত্রের গ তাও খুঁজে পাওয়া যায়না । দুর্নীতি, অনাচার, খুন, নির্যাতন, কি নেই? সব কিছুই কি গনতান্ত্রিক রাষ্ট্রে বিশেষ করে বাংলাদেশে থাকতেই হবে তা না হলে কিসের গনতন্ত্র ? এমনই মনে হয় ।

বলা হচ্ছে ক্ষমতায়নের জন্য অবাধ তথ্যপ্রবাহ নিশ্চিত করা হবে কিন্তু আদৌ কি সম্ভব? যেখানে নিজের চিন্তা, ধ্যান ধারনা, মতামত প্রকাশ করার পরিবেশ থাকেনা, নিরাপত্তা থাকেনা সেখানে অবাধ তথ্যপ্রবাহ বিষয়ক চেতনা একটি মিথ্যাচার মাত্র বা একটা গুড়ে-বালি মাত্র ।

আশা নিয়েই মানুষ বেঁচে থাকে তাই সুন্দর শান্তির বাংলাদেশ দেখার আশা নিয়েই আছি । নিশ্চয়ই একদিন এ আশা পূরন হবে যদি সবাই মিলে এ আশা করি ।