ক্যাটেগরিঃ মুক্তমঞ্চ

যে কোন নেতা বা নেত্রীদের আমরা মনে করি যে, তাদের আত্না অনেক বড় । তাদের আত্নার সাথে সাধারন জনগণের বা অন্য কারোর আত্নার কোন তুলনা হয়না । বড় আত্না মানে উদার, সুন্দর, দয়াবান, ক্ষমতাবান, সৎ, মহৎ আরো কত বিশেষণে বিশেষায়িত বা আখ্যায়িত করা যায় ।আত্নাতো মানুষের মধ্যেই থাকে যা প্রাণহীন দেহে বা শরীরে থাকেনা । আত্না ছাড়া কি মানুষ আছে –কেউ তা বিশ্বাস করে? করেনা ।

যাদের অনেক সাহস, ভয়ংকর রিস্ক নিতে পারে, নিজের প্রাণ বিপন্ন করে অন্যদের জন্য ঝাপিয়ে পড়তে পারে তাদের আত্না মহৎ– বলার অপেক্ষা রাখেনা । নেতা নেত্রীদের বেলায় তো বলতেই হয় তাদের আত্মা মহৎ না হলে, বড় না হলে কিভাবে নেতা হলো ? আজকে সকালে দুর্বল আত্মা নিয়ে এক জায়গায় লেখা পড়ছিলাম সেখানে বলা আছে যে, দুর্বল আত্মা মানে শয়তান যারা সত্যের বিপরীতে চলে যারা মানুষকে কুপথে পরিচালনা করে যারা মানুষের ধবংসাত্নক কাজ করতে উৎসাহ দেয় দ্বিধা করেনা । নিজের স্বার্থের জন্য তারা মানুষের আত্না কেড়ে নিতেও তারা দ্বিধা করেনা । লোক দেখানো দয়ামায়া তাদের । ভিতরের পর্দায় র্পণ ছবির মত অশ্লীল এবং ভয়ংকর ।

হুট করেই মাথায় আসলো যে অন্তত আমাদের দেশের কিছু জনগনের নেতার সাথে দুর্বল আত্নার বর্ননার সাথে ১০০% মিল খুঁজে পাই । যেমনঃ ন্যায় অন্যায় বুঝার ক্ষমতা তাদের থাকেনা । পেশী শক্তির প্রয়োগ অনেক বেশী । দয়া মায়া মানে নিজের পরিবার আর আত্বীয়ের মধ্যে সিমাবদ্ধ, খারাপ কাজ করতে মানুষকে বিপদে ফেলে দিয়ে হাত তালি দেই চেয়ারে বসে পায়ের উপর পা তুলে — হাসে ঠিক শয়তানের মত– মোভিতে যেমন শয়তানের হাসি আমরা অবলোকন করি । দুর্বল আত্মার জন্য ডাক্তার বড় প্রয়োজন চিকিৎসা সেবা দেয়া জরুরী যেন আত্নার দুর্বলতা সেরে উঠে কিন্তু কে করবে এর চিকিৎসা??? বড় প্রশ্ন——-

slide