ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

কত কথা কত মন্তব্য ইতিবাচক থেকে নেতিবাচক মন্তব্যগুলো পড়ে পড়ে আমারও আমার নিজের কিছু মতামত দিতে খুব ইচ্ছে হলো তাই ছোট করে নিজের কথাগুলো লিখে জানাচ্ছি । সবারই একটি প্রত্যাশা থাকে যেন যে কোন পরীক্ষায় র্সবোচ্চ রেজাল্ট যেন অর্জন করতে পারে । গুনগত শিক্ষা বা জীবনের জন্য কতটুকু শিক্ষা হয়েছে বা র্অজন করছে সেটা বড় বিষয় না বিষয়টি হচ্ছে যেন র্সবোচ্চ নম্বর নিয়ে সবার উপরে থাকতে পারে সেটাই মূখ্য বিষয় ।

একটি নিউজের সূত্র ধরে বলতে চাই জিপিএ ফাইভ রাখার মানেটা আসলে কি?
** এসএসসি’র পূর্ণরূপ বলতে পারেনি এ বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কয়েকজন শিক্ষার্থী! এমনকি বলতে পারেনি জিপিএ বলতে কী বুঝায়! দেশের রাষ্ট্রপতি কিংবা নিউটনের সূত্র সম্পর্কেও নেই তাদের কোনো ধারণা। এ বছর এসএসসিতে জিপিএ-৫ পাওয়া বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীর সাক্ষাৎকার নিয়ে একটি বেসরকারি টেলিভিশনের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এমন চিত্র। ওই প্রতিবেদনে প্রতিবেদক এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১৩ জন শিক্ষার্থীকে সাধারণ জ্ঞাণ, গনিত, সাধারণ বিজ্ঞানসহ কিছু বিষয়ে কয়েকটি প্রশ্ন করেন। কোনো প্রশ্নের সঠিক উত্তর দূরের কথা, উত্তরের ধার ঘেঁষেও যেতে পারেনি ওই শিক্ষার্থীরা। -http://www.bd-pratidin.com/national/2016/05/30/147955**

অবাক হওয়ার মত কিছু নেই কারন এতদিন ধরে যে শিক্ষা ব্যবস্থা চলে এসেছে তা নিত্যান্তই যেন ভাল রেজাল্ট করার জন্য শুধু । কোচিং প্রাইভেট টিউশনি নোটবুক, সাজেশন সবই তো শুধুমাত্র ভাল রেজাল্টকে কেন্দ্র করেই হয় । সত্যিকারের শিক্ষা লাভ করবে কিনা হৃদয়ে ধারন করবে কিনা, মন মানসিকতা বিকশিত হবে কিনা এসবতো শিক্ষাব্যাবস্থায় ভাবা হয়নি । অনেকের ধারনা এর জন্য শির্ক্ষাথী দায়ী, কেন সে বলতে পারেনা বা কেন সঠিক উত্তর দিতে পারেনা জিপিএ ৫ পাওয়া একজন ছাত্র/ছাত্রী । কেন পারবে সে? সেতো নম্বর পাওয়ার জন্য বা জিপিএ ৫ পাওয়ার জন্যই কেবল মাত্র মুখস্থ করেছে তোতাপাখির মত । জ্ঞান রাভের জন্য বুঝার জন্য বা জানার জন্য তো সে পড়েনি, জিপিএ ৫ পেয়েছে, বেশ আর কি লাগে ? যার জন্য পড়েছে তা তো পেয়েছেই সুতরাং কেউ প্রশ্ন করলে তার সঠিক উত্তর দিতে না পারাটা তো কোন দোষের না ।

সুতরাং আমাদের কোন পথে শিক্ষা ব্যবস্থা পরিচালনা করলে সত্যিকারের শিক্ষা র্অজন করতে পারবে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম সেটি নতুন করে ভাববার এখনই সময় । কিন্তু কে ভাববে এ নিয়ে? এটাই বড় প্রশ্ন । ভাবনা ভাবনাই থেকে যাবে বাস্তবে রুপ হবে কিনা সেটা আরো বেশি অনেক দূরের ভাবনা । বড় মায়া হয় আমাদের ছেলে মেয়েদের জন্য কিন্তু এ অবস্থানে থেকে যেন করার কিছু নেই । তবুও মন থেকে চাই আমাদের ছেলেমেয়েরা যেন শুধু জিপিএ ৫ না পাক বরং দেখা পাক যেন জীবনের প্রকৃত আলো ।