ক্যাটেগরিঃ জনজীবন

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসুর সামনে দিয়ে গেলে একটি মিষ্টি বাঁশির সুর প্রায়ই শুনতে পারবেন। ইচ্ছা হোক আর অনিচ্ছা হোক সেই সুর শুনে আপনার একবার হলেও সেই ব্যক্তির দিকে চোখ পড়বে। আর সেই ব্যক্তি হলেন বাউল আব্দুল গফুর বংশীবাদক। আমরা সবাই গফুর ভাই বলে ডাকি। আজ দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসুর সামনে বাঁশি বাজিয়ে ও বাঁশি শিখিয়ে চলেছেন। ভাগ্য পরিবর্তনের আশা নিয়ে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বাঁশি বাজিয়ে চলেছেন। এই বিশ্ববিদ্যালয়ে কত নামী-দামী ব্যক্তিরা আসা যাওয়া করে কেউ যদি একটু সহায় হয় তাহলে ওনার দীর্ঘ দিনের লালিত স্বপ্ন একটি বাঁশির ক্যাসেট প্রকাশ করবেন। পেট চালানো যেখানে দায় সেখানে এই আশা করা আশায় গুড়ে বালি। একসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বাঁশি কিনতো এবং বাঁশি বাজানো শিখতো। এই বাঁশি বিক্রির টাকা দিয়ে দুই মেয়ের বিয়ে দিয়েছেন এবং ছোট ছেলেকে স্কুলে পড়াচ্ছেন। কিন্তু বর্তমানের শিক্ষার্থীরা খুব যান্ত্রিক হয়ে গেছে। বিশ্বায়নের আগ্রাসনে তারা আর বাঁশি শেখার প্রতি আগ্রহ বোধ করে না। ফলে না খেয়ে, অসুখে পড়ে ধুকতে হয় গফুর ভাইদের। যারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী তাদের কাছে গফুর ভাই একজন পরিচিত মুখ এবং প্রতিবেশি। আমাদের দায় আছে তার পাশে দাঁড়ানো।

গফুর ভাই

বিভিন্ন মানুষের কাছে সাহায্যের হাত পেতে কোন মত দিনযাপন করছেন তিনি। অন্যের উপর নির্ভর করে দিন চলা কোন সমাধান নয়। নিজেকে স্বাবলম্বী হতে হবে। আমরা লোরক সোসাইটি থেকে উদ্যোগ নিয়েছে গফুর ভাইকে স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তুলবো যাতে তিনি আর কারো কাছে সাহায্যের হাত না পাতেন। আমাদের পরামর্শে তিনি বাঁশি বিক্রির পাশাপাশি অন্য ব্যবসা করতে রাজি হয়েছেন। ওনাকে একটি কসমেটিকস এর দোকান করে দিব। এর জন্য বাজেট ধরেছি ২০,০০০ টাকা। এর মধ্যে ১০০০০ টাকা দোকান করার জন্য এবং বাকী ১০০০০ টাকা কসমেটিকস কেনার জন্য। আশা করছি আপনারা এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা একজন মানুষকে স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তুলতে সহায়তা করবেন। বারবার একজন মানুষকে সাহায্যে করার চেয়ে একবার তাকে স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তুললে সেটাই সবচেয়ে কার্যকর উপকার করা হয়।

লোরক সোসাইটির এই উদ্যোগে যারা আর্থিক সহায়তা করে পাশে থাকতে চান তারা সাড়া দিন। এই ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার ব্যবহার করার অনুরোধ থাকলোঃ

Name: Mohammad Alamin
AC NO: 114.101.64690
Bank: Dutch Bangla Bank Limited

অথবা মোবাইল করে সরাসরি ঢাবি ক্যাম্পাসে এসে দিতে পারেন। আমাদের দূরালাপনী নাম্বারঃ ০১৯১৯৪৬৩৩৩০

আমাদের সম্পর্কে জানতে ভিজিট করুনঃ লোকসংস্কৃতি রক্ষা করি (লোরক) সোসাইটি