ক্যাটেগরিঃ প্রযুক্তি কথা

মোবাইলের এই যুগে কিভাবে চলছে বাংলাদেশ পোষ্টাল সার্ভিস। একসময় বাংলাদেশের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তের যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল চিঠির মাধ্যমে। পিয়নকে দেখলেই মনে হত আমার চিঠি নিয়ে এসেছে। টেলিকমিউনিকেশনের এই যুগে চিঠি পত্রের আদান প্রদান কমে গেছে একদম, মোবাইল থেকে মোবাইল ফোন করে এক প্রান্তের খবর অপর প্রান্তে একনিমিষে পাচ্ছে যে কেউ। যুগের প্রয়োজনে পরিবর্তন হয়েছে দিন বদলের, সব জায়গায় ছোঁয়া লেগেছে উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থার, সেই সাথে সাথে উন্নত হওয়ার দরকার ছিল বাংলাদেশ পোষ্টাল সার্ভিসের। সবার হাতে মোবাইল ফোন বিধায় পোষ্ঠাল সার্ভিসের যে দরকার নেই তা কিন্তু নয়। উন্নত রাষ্ট্রগুলোতে যেমনি পরিবর্তন হয়েছে টেকনোলজির, ঠিক তেমনি পরিবর্তন হয়েছে পোষ্ঠাল সার্ভিসের। এক্ষেত্রে বাংলাদেশের চেহারা অন্যরকম।

‘‘ইন্টারনেটের কিং সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগল বিভিন্ন সেবার মাধ্যমে যোগাযোগ ব্যবস্থা তথা গুগলে টেকনোলজিগুলো পৌছে দিয়েছে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের হাতে। কিন্তু গুগল এখনও তাদের চেকগুলো পাঠায় পোষ্ঠাল সার্ভিসের মাধ্যমে। এমন ঘটনা ঘটেছে গুগলের চেক এসে পৌছানোর প্রায় একমাস পরে চেকের মালিকের হাতে পৌছেছে। মাঝে মাঝে দুইএকটা চেক হারানোর মতও ঘটনা ঘটেছে।’’

যুগ বদলে গিয়েছে কিন্তু বদলায়নি বাংলাদেশের পোষ্টাল সার্ভিসের। বাংলাদেশের পোষ্টাল সার্ভিস আগে যেটুকু উন্নত ছিল তারচেয়ে পরিবর্তন হয়ে উন্নত থেকে উন্নতর হওয়ার কথা থাকলেও হয়েছে তার বিপরীত। এখন একটি চিঠি ডাকযোগে পাঠালে তা পেতে পেতে অনেক সময় লেগে যায়।

পেওনার একটি সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান যারা ওডেস্কসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কয়েক লক্ষাধিক ইন্টারনেটে কষ্ট উর্পাজিত টাকা মানি ট্রান্সফার করে তারেদ মাষ্টার কার্ডের মাধ্যমে। তাদের ইন্টারন্যাশনাল মাষ্টার কার্ড পাঠায় ডাকযোগে। বাংলাদেশের প্রায় ৪৫০-৮৫০ জন্য লোক তাদের মাষ্টার কার্ড পায়নি অথচ বাংলাদেশে এসে পৌছেছে এটা নিশ্চিত করেছে পেওনার কর্তৃপক্ষ।’’

যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হয়েছে তার মানে এই নয় যে ডাকযোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি দরকার নাই। অবশ্যই দরকার। পোষ্টাল সার্ভিসে দরকার একটি দক্ষ উন্নত এবং শক্তিশালী জনসম্পদ। কেননা যেখানে উপিএস, ফিডএক্স, ডিএসএ, উন্নত তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে নিমিষে পৌছে দিতে পারে এক দেশ থেকে অন্য দেশে তথা সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস, কন্টিন্টেটাল কুরিয়ার সার্ভিস দেশের অভ্যন্তরে একদিনে পোছে দেয় যে কোন ধরনের পোষ্ট। আবার বাংলাদেশ যদি বাংলাদেশের পোষ্টাল সার্ভিস এদের আদলে গড়া হতো তাহলে অন্তত দেশের মানুষ এতটাকা খরচ করে ওদের কাছে পোষ্ট না করে বাংলাদেশ পোষ্টাল সার্ভিসেই পোষ্ট করত। যাহোক বাংলাদেশের পোষ্টাল সার্ভিসের উন্নত হওয়া দরকার।

আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে সুনিশ্চিত করা দরকার বাংলাদেশ পোষ্টাল সার্ভিসের দক্ষ জনবল। অন্যথায় একদিন হয়তো হারাতে হবে মহামূল্যবান কিছু।

টেকনোলজি নিয়ে আমার পোস্টগুলো দেখতে পারেবন