ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

সাধারনত ভালো কিছু হলে আমরা আল্লাহ্‌র রহমত বলে থাকি,আর খারাপ কিছু হলে আল্লাহ্‌র গযব বলেই দায়ীত্ব এরিয়ে যাই।এখন প্রশ্ন হলো গযব কয় প্রকার ও কি কি?এখানে একটু বলে নেই যে,আমি কোন ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত দিতে চাই না বা সেই যোগ্যতা আমার নেই।ধর্ম নিয়ে খেলা করবেন রাজনীতি যারা করেন তারা।আমি খুবই তুচ্ছ সাধারন জনগনের একজন। যেহেতু আল্লাহতালার গযব নিয়ে কথা বলছি,নিন্দুকেরা এখানে ধর্মীয় অনুভুতির অনুভব করবেন,করাটা স্বাভাবিক, যদি তাতে আঘাত দিয়ে থাকি তাহলে আগেই ক্ষমা চাইছি।
আমাদের দেশে বর্তমানে সাধারন জনগনের সাথে যা হচ্ছে তা আল্লাহতালার গযব ছাড়া আর কি?উনার ইচ্ছা ছাড়া যেখানে গাছের পাতা নড়েনা।
তাহলে এই সরকারী ও বিরোধী দলের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচী কি আল্লাহ্‌র ইচ্ছা না?এই যে রানা প্লাজা ধংস হয়ে এতগুলি মানুষ মারা গেল সবাই কিন্তু সাধারণ জনগন।তাহলে দেখা যাচ্ছে সাধারন জনগনের উপরেই আল্লাহ্‌ গযব বেশী দেয়।যেমন দিচ্ছে এখন।

গত কিছুদিন যাবৎ বিরোধি দলের জনগনের গনতান্ত্রীক অধিকার আদায় করতে এই একই জনগনকে হত্যা করে,আগুনে পুড়িয়ে, ভয় দেখিয়ে উনারা কোন অধিকার আদায় করবেন এবং কার জন্য করবেন আমার তা বোধগম্য হয় না।

সরকার বিরোধীদলের হরতাল,অবরোধ,জ্বালাও পোড়াও বন্ধ করতে একই জনগনের উপর দমনের রোলার চালাচ্ছেন।যার সর্বশেষ অনন্য উদাহরণ আজ কোমলমতি শিশুদের রাস্তায় দাড়িয়ে প্রতিবাদ করা।তাদের এই প্রতিবাদ কর্মসূচীতে যদি আঘটন হয়ে যেত এর দায়ীত্ব নেওয়ার জন্য কাউকে পাওয়া যেতো কিনা সন্দেহ আছে।বিদ্যুৎ,গ্যাস,টেলিফোন লাইন বিচ্ছিন্ন করে বিরোধী দলের নেত্রীকে বাধ্য করা এটাই বা কোন গনতন্ত্র তা উনারাই ভালো জানেন।বিরোধী দলের অবরোধ ও হরতালে ক্ষতিও যা হচ্ছে তা সাধারন জনগনের।

জনগনই তাহলে উভয়ের একমাত্র সমস্যা?আমরা না থাকলেই কি ভালো?আমরা যাবো কোথায়?

ডানে সরকারীদল, বায়ে বিরোধী দল,সামনে পুলিশ, পিছনে চাচা আছেন সবার আগে থেকেই।বাকী রইল উপরের দিকে একমাত্র আল্লাহ্‌।উনিও গযব দেয় বা দিচ্ছে তাহলে যাবার যায়গা একমাত্র মাটির নিচে।তাও যদি একটু শান্তিতে যাওয়া যাবে তার কোন গ্যারান্টি নেই।হয় পেট্রোল বোমা না হয় রোড এক্সিডেন্ট নতুবা রানা প্লাজার মতো কোন ঘটনায় যেতে হবে।
এই জনগনের উপর সবাই কেন এতো ক্ষিপ্ত এর উত্তর জানার জন্য যেতে হবে সেই আল্লাহ্‌র কাছে।সব দিক বিবেচনা করে দেখা যায় সবই আল্লাহ্‌র গযব ছাড়া কিছুই না।আল্লাহতালা কেন এই সোনার বাংলায় খাটি গযব দিচ্ছেন তা উনিই ভাল জানেন।কি ও কতো মুক্তিপণ দিলে এই আল্লাহ্‌র গযব থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে তা কি কেউ বলতে পারেন?