ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

আমাদের দেশের কিছু অতিমুনাফালোভী ব্যবসায়ীর কাছে জিম্মি দেশের মানুষ। তারা ট্রেডিং এর সবক’টি খাতে ম্যানিপুলেশনের জন্য সিন্ডিক্যাট তৈরী করে নিজেদের ইচ্ছে মতো নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি ঘটিয়ে দেশের সাধারণ মানুষকে ভোগান্তির চুড়ান্ত সীমায় নিয়ে যাচ্ছে। সরকারের ক্ষমতার মেয়াদ যতই শেষ হতে থাকে ততই ওরা আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠতে থাকে। তারা বিভিন্ন সময়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি ঘটিয়ে আমাদের রক্ত ও ঘামে অর্জিত অর্থ রক্তচোষা বাদুরের মতো শুষে নেয়। তাদের কাছে কেবল দেশের মানুষ নয় শক্তিশালী গণতান্ত্রিক সরকারও যেন অসহায়। সরকার জনগণের কষ্টলাঘবের কথা চিন্তা করে প্রতিবছরই বিভিন্ন নিত্যপণ্যের শুল্ক হ্রাস করে থাকে। কিন্তু এতে ব্যবসায়ীরা আরো বেশী মুনাফা লাভের সুযোগ পেলেও আমাদের কোনো লাভ হয়না । আমরা সবাই বাজার থিওরীর একটি কথা কম-বেশী জানি যে, কর প্রত্যাহারের পর সে অনুযায়ী মূল্য কমার কথা থাকলেও তা কখনো কমেনি। কিন্তু কোন ক্ষেত্রে সরকার শতকরা ৫ ভাগ কর বাড়ালে ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন করসাজির মাধ্যমে বাড়িয়ে ১০-১৫ শতাংশ। এখানে ভোজ্য তেলের উদাহরন দিলেই ব্যবসায়ীদের অতি লোভের বিষয়টি আরো বেশী পরিস্কার হবে। ২০১২-১৩ অর্থ বছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শুল্ক, মূসক ও এআইটি বাবদ মোট ২২ শতাংশ কর হ্রাস করলেও বাজারে এর কোনো প্রতিফলন নেই। ভোজ্য তেল আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে। জনগণ কর কমানোর কোনো সুফল পাচ্ছেনা, লাভের গুর সবটাই পিঁপড়ারা খেয়ে ফেলছে?????!!!!!!!??????