ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

ইতিহাসে ৪ এবং বাংলায় ৭ নাম্বার পেয়ে ফাস্ট ডিবিশনে ফেল করা অতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ফিজিক্সের একটি সুত্র মনে করিয়ে দিতে চাই.....শক্তির নিত্যতা সূত্র অনুসারেঃ "শক্তির সৃষ্টি বা বিনাশ নেই, শক্তি কেবল একরূপ থেকে অপর এক বা একাধিকরূপেপরিবর্তিত হতে পারে। "Viber আর Tango এর সামনে গণতন্ত্র ভর্তি বালুর ট্রাক দিয়েছেন, হয়তো যেকোনো সময় ফেসবুকের সামনে ইটের ট্রাক দাঁড় করিয়ে দিবেন, রাস্তায় সরাসরি গুলি করার নির্দেশ দিয়েছেন.....সর্বশক্তি প্রয়োগ করছেন ডিজিটাল আর ডিজিটাল দেশের জনগনের উপর......কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আপনারা যে শক্তি জনগনের উপর প্রয়োগ করছেন তা কিন্তু নিঃশেষ হয়ে যাচ্ছে না! জনগনের উপর আপনাদের প্রয়োগকৃত শক্তি রুপান্তরিত হয়ে, জনগনের ভিতর অন্য শক্তির উদ্ভব ঘটাচ্ছে!কি সেই শক্তি?ভেবে দেখুনঃ বেলুনের ভিতর বাতাশ দিলে বেলুন ফুলতে থাকে, বেলুন ফুলে বড় হয়, বেলুনের প্রসারিত হওয়ার কারনও আছে, সেটিও ফিজিক্সের একটি তত্ব। কিন্তু বেলুন কি সারা জীবনই ফুলতে পারে? অবশ্যই না।বেলুনের ভিতর বায়ুশক্তি প্রবেশ করে বেলুনকে ফুলিয়ে দেয়, কিন্তু যখন বেলুনের বায়ুশক্তি সঞ্চিত করার বা ধারণক্ষমতা অতিক্রান্ত হয়, তখনই বেলুন তার ভিতর সঞ্চিত বায়ুক্তির উদগিরন করে বিস্ফোরন ঘটায়।

মাননীয় পীর সাহেবা ভেবে দেখুন, আপনারা কিন্তু জনগনের উপর বায়ুশক্তি প্রয়োগ করছেন না। আপনারা প্রয়োগ করছেন আগ্নেয়াস্ত্রেরশক্তি, সুতরাং আপনাদের প্রয়োগকৃত আগ্নেয়াস্ত্রেরশক্তির রুপান্তরিত শক্তি যদি জনগন উদগিরণ করতে শুরু করে, তবে আপনাদের কি অবস্থা হতে পারে!সুতরাং, শক্তি প্রয়োগ না করে আপোষ মিমাংসায় আসুন। নয়ত জনগনের শক্তি বিস্ফোরিত হলে কঠিন সর্বনাশ হবে। তখন.....