ক্যাটেগরিঃ বিবিধ

শালীনতা বর্জিত নারী স্বাধীনতা আসলে কি প্রয়োজন কি। আজকাল প্রতিদিন পেপার খুললে দেখা যায় প্রতিনিয়ত ধর্ষণ ও পর্ণ ভিডিওর কথা। জানিনা এর শেষ কোথায়, কোথায় গিয়ে দাঁডাবে আমাদের এই সমাজ?প্রশ্ন আসে মনে কি করব? কি করে রক্ষা করা যায়।এখন ক্লাস ৯/১০ এর মেয়েদের মোবাইলে পাওয়া যায় ২-৪ টা ছেলেদের নাম্বার। ছেলেদের তো কথাই নাই বললাম। মোবাইল ইউজ করতে না দিলে হব স্বাধীনতা হরণ কারী আর দিলে হয়ে যাব আদিযুগী।আমদের না্রীরা স্বাধীনতার নামে যাহা শুরু করিয়াছেন তা একদিন কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে ভবিষ্যত ই ভাল জানেন? তাদের যদি বোরকা পড়তে বলি আমি হয়ে যাব মধ্য যুগীয় আর জিন্স টি শার্ট পড়তে দিলে হয়ে যাব মডার্ন। এই মডার্ন এর শেষ পরিণতি দেখলে দেখব প্রাচের দিকে তারা এখন পারিবারিক বন্দন থেকে আলাদা হয়ে কেউ সমকামিতার দিকে ছুটে চলেছে কারন ওপেন থেকে বোরিং হয়ে ডিফারেন্ট খুঁজছে। আর অবলীলায় হিউম্যান রাইট এর নামে শুরু হয়েছে স্বাধীনতা। সত্যিই আজব এই স্বাধীনতা।একসময় আমরা টেলিবিশন বিচিত্রা ঘরে আনলে লুকিয়ে পড়তাম আর আজকের যুগের ছেলে মেয়েদের মোবাইলে যে সমস্ত ভিডিও থাকে তা সত্যিই বলার অপেক্ষা রাখে না। কাকে দোষ দিব বুঝে উঠতে পারছি না। মাঝে মাঝে নিজেকে ধিক্কার দিয় পুরুষ তুমি এত লোভি কেন? নারী তুমি স্বাধীনতার নামে কাপড় আর কত ছোট করবে।নাকি বলব বিজ্ঞান কে তুমি থেমে যাও। পৃথিবী আজব স্বাধীনতার নামে এই গজব কতদিন চালিয়ে নিবে?ধন্যবাদ সবাইকে মান্নান আলজেরিয়া থেকে।