ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য পুনরুদ্ধার করে ঘুরে দাড়ানোর চেষ্টা করছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। একের পর এক সংঘর্ষ, অন্তঃকোন্দল আর নানা সমস্যায় জর্জরিত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগকে সম্প্রতি কেন্দ্রীয় কমিটি পক্ষ থেকে কার্যক্রম চালু করার আশ্বাস দেয়। জানা যায়, গত বছরের ৫ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের আল বেরুনী হলে ছাত্রলীগের দুই গ্র“পের সংঘর্ষের পর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কার্যক্রম স্থগিত করে কেন্দ্রীয় কমিটি। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন স্থগিত কমিটির সভাপতি রাশেদুল ইসলাম শাফিন ও সাধারণ সম্পাদক নির্ঝর আলম সাম্যসহ ২২ নেতাকর্মী বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করে। ইতিমধ্যে ছাত্রদলেরও কমিটি গঠিত হওয়ায় ছাত্রলীগ আরও হুমকির মুখে পড়ে। চতুর্মুখী সংকট থেকে বেরিয়ে এসে জাবি ছাত্রলীগকে নতুনভাবে সাজানোর জন্য কেন্দ্রীয় কমিটি কাজ শুরু করছে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হায়দার চৌধুরী রোটন বলেন, ‘আগামী কয়েক দিনের মধ্যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কার্যক্রম চালু করা হবে এবং যোগ্য ও ত্যাগী নেতাকর্মীদের দিয়ে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হবে।’ গত সপ্তাহে ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক নুরুল হাসনাত তালুকদারকে কুপিয়ে যখম করার ঘটনায় জড়িতদের দল থেকে বহিষ্কার করা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক। ওই ঘটনায় ১৩ জনকে আসামী করে থানায় মামলা হয়েছে। জাবি শাখা ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সভাপতি রাশেদুল ইসলাম শাফিন বলেন, ‘আমরা জাবি ছাত্রলীগকে একটি মডেল হিসাবে উপস্থাপন করতে চেষ্টা করছি’। এদিকে বর্তমান স্থগিত কমিটির কার্যক্রম পুনরায় চালু করার ঘোষনায় ক্যাম্পাসে অবস্থানকারী ছাত্রলীগ গতকাল বুধবার এক বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিল থেকে তারা বর্তমান স্থগিত কমিটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক কে প্রতিহতের ঘোষনা দেয়। এ বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা শামীম বলেন, ক্যাম্পাসে কোন স্থগিত কমিটির কার্যক্রম চলবে না। তাদের আমার প্রতিহত করব”।