ক্যাটেগরিঃ প্রশাসনিক

 
bas

ঈদ পূজা শেষ হলেও বকশিসের অজুহাতে নিরীহ যাত্রীদের জিম্মী করে যানবাহনের মালিক শ্রমিকরা আদায় করছে অতিরিক্ত ভাড়া । অতিরিক্ত যাত্রী পাওয়ার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে লক্কর ঝক্কর মার্কা যানবাহনগুলিও রাস্তায় নামানো হয়েছে । সংশ্লিষ্ট আইন প্রয়োকারী সংস্থা এ বিষয়ে জোড়ালো ভূমিকা না নেয়ায় বেপরোয়া হয়ে পড়েছে যানবাহন কর্তৃপক্ষ । অভিযোগে প্রকাশ , দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ছেড়ে যাওয়া ঢাকাগামী বাস ২/৩ গুণ ভাড়া আদায় করছে। এরপরও ছাঁদে উঠানো হচ্ছে অতিরিক্ত যাত্রী । বাসে ছাঁদের ভাড়া কম হওয়ায় নিন্মআয়ের মানুষেরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাত্রী হচ্ছেন । দেশের বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়কগুলোতেও একই চিত্র । সিএনজি চালিত অটো রিকশার ভাড়াও ঈদ বকশিসের নামে আদায় করা হচ্ছে ২/৩ গুণ । যাত্রীরা সময় বাঁচাতে অথবা কর্মস্থলে যোগ দেয়ার আর কোন ব্যবস্থা না থাকায় অগত্যা বাধ্য হচ্ছেন সংশ্লিষ্ট ষ্টাফদের ইচ্ছা মাফিক ভাড়া পরিশোধে । যাত্রীদের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ঢাকার শেষ ট্রিপ সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত হলেও এখন গভীর রাতেও বাস ছাড়া হচ্ছে ঢাকার পথে ।

রাতে সড়কে ট্রাক বেপরোয়া চলাচল করলেও বাস যাত্রীরা তা জেনেও নিতান্ত প্রয়োজনে চাকরী রক্ষায় যাত্রী হচ্ছেন । দেশের ৮টি বিভাগ , ৬৪ জেলার উপজেলাগুলিতে বাস ও যাত্রীর সংখ্যা অনেক । অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলেও বাস মালিক কর্তৃপক্ষ যাত্রীদের সুবিধায় ন্যূনতম সুবিধা সৃষ্টি করেনি আজও । অনেক স্থানে বাসের টিকিট কাউন্টার ড্রেনের উপর স্থাপিত । যাত্রীদের বসার সুযোগ নেই । প্রখর রোদ আর ঝড় বাদলে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকতে হয় । যাত্রীদের প্রাকৃতিক প্রয়োজন হলে চেপে যাওয়া ছাড়া গত্যন্তর নেই । যাত্রীরা জানান , ন্যূনতম সুবিধা না দিয়ে বাস কর্তৃপক্ষ অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে প্রতিকার পাওয়া যায় না । বাস মালিক কর্তৃপক্ষ জানায় , অনেক মালিকের ইচ্ছা আছে যাত্রী সুবিধা সৃষ্টি করার । এক শ্রেণীর রক্তচোষা মালিকের কারণে সুবিধা সৃষ্টি করা সম্ভব হয় না । পুলিশের বক্তব্য হচ্ছে,, অতিরিক্ত ভাড়া শুধু যাত্রীদের নিকট থেকেই নয় । আমাদের নিকট থেকেও নেয়া হয় । মাঝে মধ্যে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়কারী ড্রাইভার সুপারভাইজার আটক করে থানায় আনা হয় । আর অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করবে না মর্মে মুচলিকা দিয়ে তারা আবারও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অপতৎপরতায় লিপ্ত হয়। ড্রাইভার মালিক শ্রমিকরা জানান , চাকরি বাঁচাতে, মালিকদের খুঁশি রাখতে এবং নিজেদের একটু ভালো চলার জন্যই অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হয়ে থাকে । এখন প্রশ্ন উঠেছে যানবাহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় রোধ করবে কে ?